বিজ্ঞাপন

ছয় গোলের রোমাঞ্চে রিয়ালকে রুখে দিল লেভান্তে

August 23, 2021 | 4:06 am

স্পোর্টস ডেস্ক

লাল কার্ড, প্রতি আক্রমণে গোল কি ছিল না লেভান্তে ও রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচে! রোমাঞ্চ ছড়ানো ম্যাচে দেখা মিলল ছয়টি গোলের। যার মধ্যে দুই পক্ষই করল সমান তিনটি করে গোল। আর শেষ পর্যন্ত ৩-৩ গোলের সমতায় পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়ল রিয়াল ও লেভান্তে। দুইবার পিছিয়ে পড়া রিয়ালকে দুইবার সমতায় ফেরান ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের প্রথমার্ধে গ্যারেথ বেলের একমাত্র গোলে লিডে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। বিরতির পর ফিরেই মাত্র ২৮ সেকেন্ডের মধ্যেই লেভান্তেকে সমতায় ফেরান রজার। এরপর ৫৭ মিনিটে জর্জ ডে ফ্রুটোসের ফ্রিকিক থেকে গোল করে হোসে ক্যাম্পানা লেভান্তেকে এগিয়ে নেয়। পরে ৭৩তম মিনিটে দারুণ এক প্রতি আক্রমণে গোল করে রিয়ালকে সমতায় ফেরান ভিনিসিয়াস জুনিয়র। এর মাত্র ছয় মিনিট পরে আলাবার কাছ থেকে উপহার পাওয়া বলে টোকা দিয়ে লেভান্তেকে আবারও লিড এনে দেন রবার।

ছয় গোলের রোমাঞ্চে রিয়ালকে রুখে দিল লেভান্তে

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়বার পিছিয়ে পড়ার পর ম্যাচের ৮৫তম মিনিটে করিম বেনজেমার দারুণ এক পাস থেকে বাঁ দিক থেকে ঢুকে দারুণ এক বাঁকানো শটে জালের দেখা পান ভিনিসিয়াস। রিয়াল ৩-৩ গোলে সমতায় ফেরে। এর মিনিট তিনেক পরে আরও একটি প্রতি আক্রমণে বলের দিকেই ছুটছিলেন ভিনিসিয়াস। তবে লেভান্তে গোলরক্ষক আইতর এগিয়ে এসে মধ্যমাঠ থেকে হাত দিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে বল ঠেকিয়ে দেন। সঙ্গে সঙ্গে লাল কার্ড দেখিয়ে তাকে মাঠ থেকে বের করে দেন রেফারি। শেষ দিকে অনেক চাপ তৈরি করলেও আর গোলের দেখা পায়নি। তাতেই ৩-৩ গোলে সমতায় শেষ হয় ছয় গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচটির।

লেভান্তের জালে বল জড়াতে খুব বেশি সময় নেয়নি লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। মাত্র পাঁচ মিনিটের মাথায় বাঁ দিক থেকে ডি-বক্সের ভেতর বল নিয়ে ঢুকে পড়েন করিম বেনজেমা। তবে শট নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছিলেন না রিয়াল অধিনায়ক তাই তো খুঁজে নিলেন ডি-বক্সে দৌড়ে আসা গ্যারেথ বেলকে। ডান পায়ের দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ। ম্যাচের পাঁচ মিনিটের মাথায় রিয়াল এগিয়ে ১-০ গোলের ব্যবধানে।

বিজ্ঞাপন

এরপর ম্যাচের প্রথমার্ধের বাকি সময়টা কেবল রিয়ালকে ঘিরেই। লেভান্তেকে কোনো প্রকার সুযোগই দেয়নি কার্লো আনচেলোত্তির দল। একের পর এক আক্রমণ করে লেভান্তের রক্ষণের বেশ ভালোই পরীক্ষা নিয়েছে রিয়াল। আর রিয়ালের নেওয়া সব পরীক্ষাতেই উৎরে গেছে লেভান্তে। প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হজম করেনি স্বাগতিকরা।

ছয় গোলের রোমাঞ্চে রিয়ালকে রুখে দিল লেভান্তে

বিজ্ঞাপন

বিরতির পর রিয়ালকে কিছু বুঝে উঠতে দেয়নি স্বাগতিকরা। খেলা শুরুর বাঁশি বাজার মাত্র ২৮ সেকেন্ডের মধ্যেই গোল পরিশোধ করে দেয় লেভান্তে। রিয়ালের দুর্বল রক্ষণভাগ যে গোটা মৌসুম তাদের ভুগাবে তার দেখা মিলেছে এই ম্যাচেই। কিক অফ থেকে বল নিয়ে মেলেরো ডি-বক্সের ভেতর পাস দেন রজারকে। এরপর দারুণ এক শটে কোর্তোয়াকে পরাস্ত করে লেভান্তেকে সমতায় ফেরান রজার।

সমতায় ফেরার পর আরও বেশি তেঁতে ওঠে লেভান্তে। রিয়ালের দুর্বল রক্ষণের সুযোগ নিয়ে ৫৭তম মিনিটে দ্বিতীয় গোল আদায় করে নেয় লেভান্তে। আক্রমণভাগের ডান দিক থেকে জর্জ ডি ফ্রুটোস দারুণ এক ভাসানো ক্রস করেন বাঁ দিকে থাকা হোসে ক্যাম্পানার উদ্দেশে। ফাঁকায় থাকা ক্যাম্পানা দুর্দান্ত এক ভলিতে বাঁ দিকের কোনা দিয়ে বল জালে জড়ায়। আর লেভান্তে লিড নেয় ২-১ গোলের।

বিজ্ঞাপন

পিছিয়ে পড়ে এক সঙ্গে তিনটি পরিবর্তন আনেন আনচেলোত্তি। ইস্কো, গ্যারেথ বেল এবং এডেন হ্যাজার্ডকে তুলে নিয়ে মার্কো অ্যাসেন্সিও, রদ্রিগো সিলভা এবং ভিনিসিয়াসকে মাঠে নামান এই ইতালিয়ান কোচ। বদলি হিসেবে মাঠে নামার ১৩ মিনিটের মাথায় দলকে সমতায় ফেরান ভিনিসিয়াস।

ছয় গোলের রোমাঞ্চে রিয়ালকে রুখে দিল লেভান্তে

৭৩তম মিনিটে প্রতি আক্রমণে নিজেদের অর্ধ থেকে ক্যাসেমিরোর থ্রু পাসে বল পেয়ে যান ভিনিসিয়াস। দুর্দান্ত গতিতে দুই ডিফেন্ডারের মধ্য দিয়ে বল নিয়ে ছুটে ঢুকে পড়েন লেভান্তের ডি-বক্সে। এরপর বাঁ দিক থেকে ডান পায়ের ক্লিনিক্যাল ফিনিশিংয়ে রিয়ালকে ২-২ গোলে সমতায় ফেরান এই ব্রাজিলিয়ান তরুণ। তবে সমতায় বেশি সময় আর থাকতে পারেনি রিয়াল। ৭৯তম মিনিটে ম্যাচটাই যেন হাত থেকে ফেলে দিল রিয়ালের অস্ট্রিয়ান ডিফেন্ডার ডেভিড আলাবা। বার্দির ভাসানো বল বিপদমুক্ত করতে হেড দেন আলাবা তবে তার হেডে বল গোলমুখে থাকা রবারের সামনে গিয়ে পড়ে। আর কোর্তোয়াকে কোনো সুযোগ না দিয়ে আলতো টোকায় লেভান্তেকে ৩-২ ব্যবধানের লিড এনে দেন রবার।

পিছিয়ে পড়ে মরিয়া হয়ে ম্যাচে ফেরার রাস্তা খুঁজতে থাকে রিয়াল। এবারেও রিয়ালের ত্রাতা ভিনিসিয়াস। বাঁ দিক থেকে আক্রমণে উঠে বল নিয়ে ডি-বক্সের ঠিক কোনা থেকে ভিনিসিয়াসকে পাস দেন করিম বেনজেমা। আর কঠিন অবস্থা থেকেও বাঁকানো শটে গোলপোস্টে লাগিয়ে জালে বল জড়ান ভিনিসিয়াস। আর তাতেই রিয়াল ৩-৩ গোলে সমতায় ফেরে। ম্যাচের ৮৫তম মিনিটে সমতায় ফেরা রিয়াল তখন ছুটছে জয়ের দিকে।

ছয় গোলের রোমাঞ্চে রিয়ালকে রুখে দিল লেভান্তে

প্রতি আক্রমণে বল নিয়ে ছুটছিলেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। নিশ্চিত বিপদ বুঝতে পেরে গোলপোস্ট ছেড়ে মধ্যমাঠে বেরিয়ে এসে হাঁটু দিয়ে বল ঠেকান লেভান্তে গোলরক্ষক আইতর। কিন্তু ফিরতি বল তার হাতে লাগলে রেফারি সঙ্গে সঙ্গে লাল কার্ড দেখান এই গোলরক্ষককে। ডিফেন্ডার ভেজোকে ম্যাচের বাকি সময় গ্লাভস হাতে দেখা যায় গোলপোস্টের নিচে। শেষ পর্যন্ত ১০ জনের দলের পরিণত হওয়া লেভান্তে ম্যাচের শেষ পাঁচ মিনিটে রিয়ালকে আর লিড নিতে দেয়নি। আর তাতেই ম্যাচ শেষ হয় ৩-৩ গোলের সমতায়।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন