বিজ্ঞাপন

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস, বর্ণিল এফডিসি

April 2, 2018 | 8:55 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট ।।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস। এফডিসিতে নেয়া হয়েছে সব ধরনের প্রস্তুতি। দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’।

১৯৫৭ সালের ৩ এপ্রিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন প্রাদেশিক সরকারের শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রী হিসেবে প্রাদেশিক পরিষদে চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন বিল উত্থাপন করেন। আর এই বিলের মাধ্যমে নির্মিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। প্রতিবছর দিনটিকে স্মরণ করে পালন করা হয় জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস। ২০১২ সালে দিবসটি ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস, বর্ণিল এফডিসি

দিনটি উদযাপনের প্রস্তুতি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। পুরোনো থেকে নতুন, সব ধরনের চলচ্চিত্রের পোস্টার দিয়ে সাজানো হয়েছে পুরো এফডিসি প্রাঙ্গণ। দর্শনার্থীরা খুব সহজেই মিলিয়ে দেখতে পারবেন দেশীয় চলচ্চিত্রের পরিবর্তনের ধরন। পোস্টার দিয়ে সহযোগিতা করেছে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ।

বিজ্ঞাপন

 জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস, বর্ণিল এফডিসি

এছাড়াও এফডিসির প্রশাসনিক ভবনের সামনে রয়েছে মেলার আয়োজন। চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্টল থাকবে এখানে।

বিজ্ঞাপন

চিত্রনায়ক মান্না ডিজিটাল কমপ্লেক্সের সামনে নির্মিত হয়েছে মূল মঞ্চ। এখান থেকেই ঘোষণা করা হবে সপ্তম চলচ্চিত্র দিবসের উদ্বোধন। সন্ধ্যায় এই মঞ্চেই হবে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। পুরো এফসিডি সাজানো হয়েছে বর্ণিল অালোয়।

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস, বর্ণিল এফডিসি

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে শুরু হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসের উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, সাংসদ এ কে এম রহমত উল্লাহ, সাংসদ সুকুমার রঞ্জন ঘোষ, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল মালেক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমির হোসেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস, বর্ণিল এফডিসি

দিনব্যাপী আরও থাকবে র‌্যালী, মেলা, টক-শো, স্থিরচিত্র ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, রেড কার্পেট সংবর্ধনা। বেলা ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে সেমিনার। বিকাল ৫টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

তবে মূল আয়োজনে অংশ নিচ্ছে না চলচ্চিত্রের সংগঠনগুলো। অর্থাৎ সরকারিভাবে আয়োজিত এফডিসির অনুষ্ঠানগুলো থেকে আলাদা হয়ে ভিন্ন আয়োজন করবে সংগঠনগুলো।

ছবি: আশীষ সেনগুপ্ত

সারাবাংলা/পিএ

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন