বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ ও উজেবেকিস্তান ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সভা অনুষ্ঠিত

September 7, 2021 | 8:26 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশ ও উজেবেকিস্তান যৌথভাবে কাজ করতে পারে। আইসিটি খাতে দুই দেশের কাজ করার অনেক ক্ষেত্র রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সময় সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উজবেকিস্তানের রাজধানীর তাসখন্দ ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস সেন্টারে ‘বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তান: আইসিটি সহযোগিতা প্রসারের সম্ভাবনা’ বিষয়ে উভয় দেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা উঠে আসে।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) আইসিটি মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের আইসিটি খাতের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি ও শিল্প বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। উজবেকিস্তানের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন উজবেকিস্তান এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট আদখাম ইকরামভ। সভায় দুই দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সর্বশেষ অগ্রগতি তুলে ধরা হয় এবং এই খাতে বিনিয়োগ ও বাণিজ্যসহ উন্নয়ন এবং বিকাশে যৌথভাবে কাজ করার ক্ষেত্রসমূহ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সর্বশেষ অগ্রগতি বিস্তারিত উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তান দীর্ঘ পরীক্ষিত বন্ধু। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তথা জ্ঞানভিত্তিক প্রযুক্তিনির্ভর অর্থনীতি গড়ে তুলতে ২০০৮ সালে রূপকল্প : ২০২১ ঘোষণা দেন। এর ফলে বাংলাদেশে ডিজিটাল অর্থনীতি দ্রুত বিকাশ লাভ করছে। দেশের প্রায় ১২ কোটির মতো মানুষ এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। আর এটি ডিজিটাল অর্থনীতির সবেচেয়ে সম্ভাবনাময় দিক। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ ব্যবসা-বাণিজ্যসহ অর্থনীতিতে দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়নে সরকার ইতোমধ্যে ডিজিটাল অর্থনীতির তিনটি এজেন্ডা হাতে নিয়েছেন। এগুলো হলো- প্রযুক্তি দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলা, দেশের সব নাগরিককে ব্রডব্যান্ড সংযোগের আওতায় নিয়ে
আসা এবং ক্যাশলেস সোসাইটি গড়ে তোলা। মোবাইল ব্যাংকিং থেকে ডিজিটাল ওয়ালেটে রূপান্তরের কাজ চলছে। দেশের নারীরা ফ্রিল্যান্সিংয়ে উল্লেখযোগ্য হারে এগিয়ে আসছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তরুণ্য শক্তিই এই ডিজিটাল অর্থনীতির সবচেয়ে বড় শক্তি।

ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক গ্রুপ (আইএসডিবি গ্রুপ) এর বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের
নেতৃত্বে তাসখন্দে এক সরকারি সফরে রয়েছেন ১৪ সদস্যের উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলের সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন এফবিসিসিআই সাবেক সভাপতি মীর নাসির, বর্তমান সহ-সভাপতি এম.এ রাজ্জাক খান রাজ, বাংলাদেশ
টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএম) সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সার, বিসিএস সভাপতি শাহিদ উল মুনীর, বাক্কো সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন, ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রির
নির্বাহী পরিচালক লিয়াকত আলী লিয়াকত, ওয়ালমার্ট ইলেকট্রিক এন্ড ইলেকটনিক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ ফরিদ আহমেদ, ওয়ালকার্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাবিহা জারিন অরনা এবং দোহাটেক নিউ মিডিয়ার প্রেসিডেন্ট এ. কে.এম সামসুদ্দোহা সহ প্রযুক্তি, শিল্প ও পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/এএম

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন