বিজ্ঞাপন

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

April 3, 2018 | 1:49 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট ।।

বিজ্ঞাপন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে এবারের জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস উদযাপন শুরু হয়। এফডিসিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ, জাজ মাল্টিমিডিয়ার চেয়ারম্যান আবদুল আজিজসহ অনেকে।

মঙ্গলবার (৩ এপ্রিল) সপ্তমবারের মতো পালিত হচ্ছে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস আর উদযাপন করা হচ্ছে ষষ্ঠবারের মতো। ১৯৫৭ সালের এই দিনে (৩ এপ্রিল) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন প্রাদেশিক সরকারের শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রী হিসেবে প্রাদেশিক পরিষদে চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন বিল উত্থাপন করেন। আর এই বিলের মাধ্যমে নির্মিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন। দিনটিকে স্মরণ করে পালন করা হয় জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস। ২০১২ সালে এই দিবসের ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার সকালে ‘জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস ২০১৮’ উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। এফডিসির প্রশাসনিক ভবনের সামনে অনুষ্ঠিত হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন তথ্যমন্ত্রী। শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়ান আমন্ত্রিত অতিথিরা।

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

বিজ্ঞাপন

মঞ্চে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আমির হোসেন। তিনি বলেন, ‘এফডিসি ও চলচ্চিত্রে যেন সুস্থ ধারা ফিরে আসে সেজন্য সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে যুব সমাজকে সঠিক পথ দেখানোর মতো চলচ্চিত্র নির্মাণ করার আহ্বান জানান তিনি।

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

বিজ্ঞাপন

দীর্ঘদিন বিনোদন ক্ষেত্রে কাজ করেছেন তারানা হালিম। এখন তিনি তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী। বিনোদনের মানুষ হয়ে রাজনীতিতে সফল হওয়ায় অভিনন্দন জানানো হয় তাকে। তারানা হালিম বলেন, ‘সবার আগে আমাদের দেশ। সবাইকে বলব, সবখানে যেন দেশের সংস্কৃতি অগ্রাধিকার পায়। শিল্পীদের সম্মান করুন, তাদেরকে ছোট করে দেখবেন না প্লিজ। আর আমরা যাতে ভালভাবে কাজ করতে পারি, সেদিকে নজর আছে সরকারের।’

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান। তার বক্তব্যে তিনি চলচ্চিত্রের অন্যতম আলোচিত পুরস্কার ‘অস্কার’ জেতার স্বপ্নের ভার তুলে দেন নতুন প্রজন্মের কাঁধে।

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহ বলেন, ‘আমাদের সমাজে ধর্মীয় গোঁড়ামি ঢুকে পড়েছে। এটা এখন একটি আন্তর্জাতিক সমস্যা। এই সমস্যা মোকাবেলায় চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদেরও দেখতে চাই। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে দেশের মানুষদের সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে।’

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

সবশেষে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। সকল বিভক্তি, জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধেই শুধু নয় জাতীয় ঐক্য তৈরি করতে সবচেয়ে বড় গণমাধ্যমের মানুষদের ভুমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি। এসময় চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের ঐক্যবদ্ধ হয়েও কাজ করার আহ্বান জানান তথ্যমন্ত্রী। আর এই কাজে সরকারের সহযোগিতা সবসময় পাওয়া যাবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’

এরপর শুরু হয় র‌্যালি। এফডিসির সামনের রাস্তা প্রদক্ষিণ করে র‌্যালিটি। এতে এফডিসির কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ফিল্ম আর্কাইভের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘ঐতিহ্যের ভিত্তি ধরি, দেশের ছবি রক্ষা করি’।

ছবি: আশীষ সেনগুপ্ত

সারাবাংলা/পিএ/টিএস/পিএম

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন