বিজ্ঞাপন

‘হয় যেতে দিন, না হয় মেরে ফেলুন’— আমরণ অনশনে প্রবাসীরা

September 14, 2021 | 3:32 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দ্রুত সময়ের মধ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দাবিতে আমরণ অনশনের ঘোষণা দিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসীরা।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে প্রবাসী কল্যাণ ভবনের সামনে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন প্রবাসীরা। তারা প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের নিচে অবস্থান নিয়েছেন।

আমরণ অনশনে বসা এসব প্রবাসীদের প্রশ্ন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরেও পিসিআর ল্যাব স্থাপনে এতো দেরি কেন? দাবি একটাই, ‘আমাদের হয় মেরে ফেলুন, না হয় যেতে দিন।’

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম থেকে আন্দোলনে যোগ দিতে আসা সাইফুল ইসলাম বলেন, করোনা মহামারির সময় হাজারো প্রবাসী দেশে ফিরেছেন। দেশে ফেরার পর নিষেধাজ্ঞার কারণে তারা আটকে গেছেন। দেড় বছর ধরে তারা দেশে। এমন পরিস্থিতিতে অনেকেই ধারদেনা করে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এরইমধ্যে অনেকের ভিসা ও আকামার মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে।

সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমাদের টাকায় দেশের অর্থনীতির চাকা ঘুরে। কিন্তু আমাদের দিকে কেউ তাকাচ্ছেন না কেন? আমাদের হয় মেরে ফেলুন না হয় যেতে দেন।

বিজ্ঞাপন

সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী পরিষদের সদস্য সচিব প্রকৌশলী এস এম মহিউদ্দিন বেলাল রনি সারাবাংলাকে বলেন, প্রায় ৫০ হাজার আমিরাত প্রবাসী ছুটিতে এসে দেশে আটকা পড়েছেন বিমানবন্দরে করোনার র‌্যাপিড টেস্ট সুবিধা না থাকায়। অনেকের ভিসার মেয়াদ শেষ। তার নিজের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০ আগস্ট।

তিনি বলেন, বিমানবন্দরে টেস্ট সুবিধা চালু হতে যত দেরি হবে, আটকে পড়া কর্মীদের ততই ক্ষতি হবে। তাই যত সম্ভব দ্রুত র‍্যাপিড পিসি আর ল্যাব স্থাপন করা দরকার।

বিজ্ঞাপন

আন্দোলনে থাকা প্রবাসীরা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমরা অনশন চালিয়ে যাব। আমরা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাছে থেকে একটা ডেডলাইন চাই, কবে নাগাদ আমরা আমাদের স্বপ্নের ল্যাব সুবিধা পাব এবং নিজ কর্মস্থলে যেতে পারব।

জানতে চাইলে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কেউ এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি। তবে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জানা গেছে, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী আজকেই এ বিষয়ে গণমাধ্যম ও প্রবাসীদের সঙ্গে কথা বলবেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসবি/এএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন