বিজ্ঞাপন

গৃহহীনদের ভাঙা ঘরের দরজা-জানালায় হাতুড়ির আঘাত: প্রধানমন্ত্রী

September 16, 2021 | 5:37 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: মুজিববর্ষ উপলক্ষে গৃহহীনদের দেওয়া ঘর নিয়ে দুর্নীতি এবং সেগুলোর কয়েকটি ভাঙার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার জন্য দুর্নীতি দমন কমিশনকে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘১৯৯৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত কম করে হলেও ১০ লাখ মানুষকে আমি ঘর তৈরি করে দিয়েছি। মাননীয় সংসদ সদস্য প্রশ্ন তুলেছেন আশ্রয় কেন্দ্রে নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে। এটা আমরা তদন্ত করছি। ৩০০টি ঘরের প্রত্যেকটি ঘরের ছবি আমার কাছে আছে। পুরো তদন্ত করে দেখা গেছে, সেখানে দরজা-জানালার ওপর হাতুড়ির আঘাত, ফ্লোরগুলো খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে তোলা হয়েছে। আমি আগামীতে সংসদে ছবি দেখাব। এটা কারা করল? তবে হ্যাঁ কারা করছে তদন্ত হচ্ছে। কয়েকজন গ্রেফতার হয়েছে, অন্যরাও হবে।’

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের ১৪তম অধিবেশনের সমাপণী বক্তব্যে প্রধান মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

সংসদ নেতা বলেন, ‘একজন মাননীয় সংসদ সদস্য বললেন দুর্নীতি দমন কমিশন নাকি বলছে তারা আর তদন্ত করবো কি? দুর্নীতি দমন কমিশনের এই কথা বলার কথা না। তাদের তো তদন্ত বন্ধ করার কথা না। তাদের তদন্ত করে দেখতে হবে সেখানে ঘর কারা ভাঙলো? তারা কারা, তাদের উদ্দেশ্য কি ছিল? তারা কেন ভাঙলো? আমি দুর্নীতি দমন কমিশনকে বলবো যে ৩০০টি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রত্যেকটার তদন্ত তাদের করতে হবে এবং রিপোর্ট দিতে হবে। এটাই আমার কথা।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ঘর যাতে ভাঙতে না পারে, সেজন্য আমরা এখন কংক্রিট এবং স্টিল দিয়ে ঘর করে দেবো। যাতে সহজে কেউ ভাঙতে না পারে। আমরা গরিবকে ঘর করে দিবো সেখান থেকেও টাকা মেরে খাবে?’ এসব হতে পারবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএইচএইচ/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন