বিজ্ঞাপন

এই রাষ্ট্রদ্রোহীদের বাড়ি-ঘর চিহ্নিত করা দরকার

September 22, 2021 | 3:12 pm

ড. সেলিম মাহমুদ

রাষ্ট্রদ্রোহী তাজ হাশমি, সামসুল আলম, কনক সরওয়ারসহ যে কুলাঙ্গাররা প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ বিরোধী অশ্লীল অপপ্রচার করে যাচ্ছে, তাদের আর কোন ছাড় নয়। বিদেশে অবস্থান করার কারণে তাদের সাময়িক সময়ের জন্য আইনের আওতায় আনা না গেলেও তাদের বিরূদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। তারা প্রতিনিয়ত আমাদের রাষ্ট্রের বিরূদ্ধে হুমকি আর অপপ্রচার করে যাচ্ছে, এই কুলাংগাররা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনাকে ভিডিও বার্তায় হত্যার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে, প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ বিরোধী ঘৃণা আর বিষোদ্গার ছড়াচ্ছে। কিছুক্ষণ আগে এক ভিডিও বার্তায় দেখলাম তাজ হাশমি নামে এক নরকের কীট আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে সরাসরি হত্যার হুমকি দিচ্ছে, পাশাপাশি রাষ্ট্রবিরোধী নানা অশ্লীল কথা বলছে। এটি দেখার পর আমি আর স্থির থাকতে পারছি না।

বিজ্ঞাপন

আমরা লক্ষ্য করছি, বেশ কিছু দিন ধরে বিএনপি ও তাদের সমমনা কিছু রাষ্ট্রবিরোধী ব্যক্তি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনবরত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে, তারা এই সরকারের পতন ঘটাবে, সরকার পতনের পর তারা আওয়ামী লীগের লক্ষ লক্ষ মানুষকে হত্যা করবে, কাউকে দেশ থেকে পালাতে দিবে না, কেউ প্রাণে বাঁচবে না- ইত্যাদি ইত্যাদি। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন অধ্যাপকও এই ধরণের ইঙ্গিত দিলেন। আমার কথা পরিষ্কার। আপনারা ক্ষমতায় আসলে লক্ষ লক্ষ মানুষকে হত্যা করবেন, কারণ বাংলাদেশের জনগণ অনেক খারাপ। আপনারা অনেকেই দেশে আছেন, আর যারা বিদেশে বসে এইগুলো বলছেন তাদের আত্মীয় স্বজনরা বাংলাদেশেই আছেন। আমরা ক্ষমতায় আছি, আমরা তো আপনাদের হত্যা করছি না, এমনকি হত্যার কথা বলা দূরের কথা- ঐ রকম কোন চিন্তাও করছি না, আপনাদের আত্মীয় স্বজনদের খুঁজে বের করার কথাও বলছি না। তাহলে আপনারা আমাদের হত্যার কথা কেন বলছেন ? আমরা যদি এখন আপনাদের হত্যার হুমকি দেই, বিষয়টি কেমন হবে? আওয়ামী লীগ হত্যার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। কিংস পার্টি বিএনপি'র প্রতিষ্ঠাতা মেজর জিয়াই জাতির পিতাকে হত্যা করে এদেশে হত্যা আর ষড়যন্ত্রের রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করেছিল। আপনারা তার লিগেসিই বহন করছেন।

তবে একটা কথা বলে রাখি, সময়ের প্রয়োজনে আমরা আপনাদের মতো কুলাঙ্গারদের যথোপযুক্ত শাস্তি দিতে প্রস্তুত আছি। আমাদের রাষ্ট্র এবং আমাদের নেত্রী জাতির পিতার কন্যা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার মর্যাদা রক্ষার্থে আমরা আপনাদের মতো রাষ্ট্রবিরোধী দুষ্ট চক্রকে নির্মূল করতে যে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রস্তুত আছি। আমরা বাংলাদেশে আপনাদের বাড়ী ঘর চিহ্নিত করেছি। আপনাদের আত্মীয় স্বজন কারা তাদেরকেও আমরা চিনি। নামে বেনামে আপনাদের অনেকেরই বাংলাদেশে বাড়ি-ঘর, সম্পত্তি এমনকি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। আর আপনাদের যারা উস্কে দিচ্ছে, তাদের সকলের পরিচয়, তাদের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের বিবরণ আমাদের কাছে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

পশ্চিমা দেশগুলোতে আমাদের মিশনগুলোকেও বলবো, রাষ্ট্রবিরোধী এই দুষ্ট চক্রটিকে আর ছাড় নয়। বাংলাদেশ রাষ্ট্রের মর্যাদা রক্ষায় এদের বিরূদ্ধে ডিপ্লোমেটিক চ্যানেলসহ অন্যান্য সকল রুটে ব্যবস্থা নেয়া দরকার।

আমাদের শরীরে জাতির পিতার আদর্শের রক্ত। পঁচাত্তুরের কারণে প্রতিনিয়ত আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়। পিতার আদর্শের একজন সৈনিক হিসেবে প্রতিনিয়ত সেই ব্যাথা অনুভব করি। খুনী চক্র এবং তাদের প্রেতাত্মাদের আমরা নির্মূল করবোই ইনশাল্লাহ। এই যুদ্ধে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে উদ্বুদ্ধ নতুন প্রজন্ম আমাদের সাথে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

লেখক: তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

প্রিয় পাঠক, লিখতে পারেন আপনিও! লেখা পাঠান এই ঠিকানায় -
sarabangla.muktomot@gmail.com

মুক্তমত বিভাগে প্রকাশিত মতামত ও লেখার দায় লেখকের একান্তই নিজস্ব, এর সাথে সারাবাংলার সম্পাদকীয় নীতিমালা সম্পর্কিত নয়। সারাবাংলা ডটনেট সকল মতাদর্শের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তবে মুক্তমতে প্রকাশিত লেখার দায় সারাবাংলার নয়।

সারাবাংলা/এসবিডিই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন