বিজ্ঞাপন

নির্দেশনা না মানার অভিযোগ অস্বীকার ভিকারুননিসা-মতিঝিল আইডিয়ালের

September 22, 2021 | 4:33 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে প্রায় দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল-কলেজ খুলেছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী, এসএসসি ও এইচএসসির শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে ছয় দিন ক্লাস করছে। তৃতীয়, চতুর্থ, অষ্টম ও নবম শ্রেণির ক্লাস হচ্ছে সপ্তাহে দুদিন করে। আর বাকিদের ক্লাস চলছে মাত্র এক দিন। কিন্তু রাজধানীর ভিকারুননিসা ও মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, তারা বিভিন্ন শ্রেণিতে সপ্তাহে এক/দুই দিন ক্লাসের সরকারি নির্দেশনা মানছে না। স্কুল দুটির সব শ্রেণিতেই প্রতিদিন ক্লাস নেওয়া হচ্ছে। তবে তারা এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ কামরুন নাহার সারাবাংলাকে বলেন, ‘কলেজকে বিতর্কিত করতে একটি মহল সংঘবদ্ধভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। সরকারি নির্দেশ না মানার অভিযোগটিও এই অপপ্রচারের অংশ। সরকার যে ক্লাসে যত দিন পাঠ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন, আমরা সেভাবেই শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করছি। ক্লাসের জন্য রুটিন হয়েছে। কেউ এমন অভিযোগ দিলেই সেটা সত্যি হয়ে যায় না। আপনারা আসুন, দেখুন আমরা কীভাবে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিচ্ছি।’

এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বাকি শাখাগুলোতে খোঁজ নিয়েও একই তথ্য পেয়েছে সারাবাংলার এই প্রতিবেদক। আজিমপুর শাখার প্রধান শাহরিমা চৌধুরী বলেন, ‘রুটিনের বাইরে শিক্ষার্থীরা কি ক্লাসে আসবে? তারা না এলে আমরা কীভাবে সব ক্লাস পরিচালনা করব? এটা নিঃসন্দেহে মিথ্যা অভিযোগ। আমরা স্বাস্থ্যবিধিসহ সরকারের প্রতিটি নির্দেশনা কঠোরভাবে বাস্তবায়নের চেষ্টা করছি। কেউ হয়তো দুরভিসন্ধিমূলকভাবে এসব অভিযোগ করে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত করতে চাচ্ছেন।’

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ শাহান আর বেগম সারাবাংলাকে বলেন, ‘যে শ্রেণিতে যে কয়দিন ক্লাসের অনুমতি দিয়েছে সরকার, তার বাইরে একটি ক্লাসও নিচ্ছি না। সত্য-মিথ্যা যাচাই করতে আপনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখতে পারেন।’

প্রসঙ্গত, গেল কয়েক দিন ধরেই বেশ কয়েকজন অভিভাবক বিভিন্ন মাধ্যমে অভিযোগ করেছেন ভিকারুননিসা ও মতিঝিল আইডিয়ালে সরকারি নির্দেশনা মেনে ক্লাস পরিচালনা করছে কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে নিয়ে আসার বিষয়ে সরকারের যে নির্দেশনা রয়েছে, সেটি না মানলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, ‘যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে, আমরা এসব অভিযোগ তদন্ত করে দেখছি। কোনো প্রতিষ্ঠান সরকারের দেওয়া স্বাস্থ্যবিধি ও শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশনা না মানলে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হব।’

ডা. দীপু মনি বলেন, ‘কেউ অভিযোগ করলে আমরা স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলব। প্রতিটি অভিযোগ গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘মহামারি নয়, এখন ডেঙ্গুরও সিজন চলছে। এই সময়ে শিক্ষার্থীদের প্রতি সবচেয়ে বেশি যত্নশীল হতে হবে। প্রতিটি শিক্ষকের কাছে অনুরোধ থাকবে, নিজের সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিয়ে শিক্ষার্থীদের বিপদে ফেলবেন না।’

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর ১২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়েছে সরকার। এসব প্রতিষ্ঠানে পঞ্চম, দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে ছয় দিন শ্রেণি কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে। তৃতীয়, চতুর্থ, অষ্টম ও নবম শ্রেণির ক্লাস হচ্ছে সপ্তাহে দু’দিন করে। আর বাকিদের ক্লাস হচ্ছে মাত্র এক দিন।

সারাবাংলা/টিএস/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন