বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু, কমেছে সংক্রমণ

September 22, 2021 | 5:07 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩৬ জন, যা আগের দিনের ২৬ জনের মৃত্যুর তুলনায় বেশি। একই সময়ে দেশে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৩৭৬ জনের শরীরে, যা আগের দিনের ১ হাজার ৫৬২ জনের তুলনায় কম।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, আগের দিন দেশে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে করোনা সংক্রমণের হার ছিল ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় তা কিছুটা বেড়ে ৪ দশমিক ৭৯ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার জন্য সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে পরীক্ষাগার ছিল ৮১০টি। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৪৫টি, জিন এক্সপার্ট ল্যাব ৫৫টি ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ল্যাব ৬১০টি।

বিজ্ঞাপন

এসব ল্যাবে পরীক্ষার জন্য সারাদেশের বিভিন্ন বুথ থেকে ২৮ হাজার ৯৮৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৮ হাজার ৭৩৬টি নমুনা। এ নিয়ে এ পর্যন্ত দেশে অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৫ লাখ ২৭ হাজার ১৫০টিতে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭০ লাখ ৩০ হাজার ২৩১টি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২৪ লাখ ৯৬ হাজার ৯১৯টি।

২৪ ঘণ্টায় কমেছে সংক্রমণ, বেড়েছে সংক্রমণের হার

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রমিত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩৭৬ জন, যা আগের দিনের চেয়ে কম। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ, যেটি আগের দিনের চেয়ে বেশি। আগের দিন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল ১ হাজার ৫৫৫ জনের শরীরে, নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলেন মোট ১৫ লাখ ৪৭ হাজার ১৭৬ জন। আর এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণের হার দাঁড়িয়েছে ১৬ দশমিক ২৪ শতাংশে।

বিজ্ঞাপন

২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে মৃত্যু

আগের দিন দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গিয়েছিলেন ২৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেলেন মোট ২৭ হাজার ৩১৩ জন। সংক্রমণ বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

পুরুষ ও নারীর মৃত্যুর পরিসংখ্যান

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৬ জন মারা গেছেন, তাদের মধ্যে পুরুষ ১৭ জন, নারী ১৯ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্ত পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৫৫৬ জন, নারী ৯ হাজার ৭৫৭ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ রোগী মৃত্যুর হার ৬৪ দশমিক ২৮ শতাংশ, নারী রোগী মৃত্যুর হার ৩৫ দশমিক ৭২ শতাংশ।

বয়সভিত্তিক মৃত্যুর পরিসংখ্যান

বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে— গত ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৬ জন মারা গেছেন তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৪ জনের বয়স ৬১ থেকে ৭০ বছর। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯ জনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছর। ৭১ থেকে ৮০ বছর বয়সী ৫ জন ও ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ৩ জন মারা গেছেন এই সময়ে। ১১ থেকে ২০ বছর, ২১ থেকে ৩০ বছর, ৪১ থেকে ৫০ বছর, ৮১ থেকে ৯০ বছর ও ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সী এক জন করে এই সময়ে মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ বছরের কম বয়সী ও ১০০ বছরের বেশি বয়সী কারও মৃত্যু হয়নি।

এখন পর্যন্ত মোট হিসাব বলছে, দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সীদের মধ্যে— ৮ হাজার ৪৮৬ জন, যা মোট মৃত্যুর ৩১ দশমিক ০৭ শতাংশ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬ হাজার ৪৫১ জনের (২৩ দশমিক ৬২ শতাংশ) বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছর ও তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪ হাজার ৭৫২ জনের (১৭ দশমিক ৪০ শতাংশ) বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছর। অন্যদিকে করোনায় মৃত্যুর হার সবচেয়ে কম ১১ থেকে ২০ বছর বয়সী (১৭৫ জন, শূন্য দশমিক ৬৪ শতাংশ), ১০ বছরের কম বয়সী (৭৪ জন, শূন্য দশমিক ২৭ শতাংশ) ও একশ বছরের বেশি বয়সীদের (৩৩ জন, শূন্য দশমিক ১২ শতাংশ) মধ্যে।

বিভাগভিত্তিক মৃত্যুর তথ্য

বিভাগওয়ারী মৃতদের তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮ জন মারা গেছেন ঢাকা বিভাগে, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০ জন মারা গেছেন চট্টগ্রাম বিভাগে। এছাড়া ২ জন করে মারা গেছেন রাজশাহী, খুলনা ও সিলেট বিভাগে। আর এক জন করে মারা গেছেন রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে। এই সময়ে বরিশাল বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যুর তথ্য নেই।

এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যুও ঢাকা বিভাগে— ১১ হাজার ৮৯৯ জন, যা করোনায় মোট মৃত্যুর ৪৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ। অন্যদিকে করোনায় সবচেয়ে কম মৃত্যু হয়েছে ময়মনসিংহ বিভাগে— ৮২৫ জন, যা মোট মৃত্যুর ৩ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ ১৪২৭ জন

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ হাজার ৪২৭ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে মোট সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ৬ হাজার ১৩৬ জন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন