Sarabangla 4th-anniversary Sarabangla 4th-anniversary
বিজ্ঞাপন

শামীম পাটোয়ারীকে মহাসচিব নিয়োগের ‘সিদ্ধান্তে’ জাপায় তোলপাড়

October 4, 2021 | 5:53 pm

আজমল হক হেলাল, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: করোনায় আক্রান্ত হয়ে জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুর মৃত্যুর পর মহাসচিব ছাড়াই চলছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। এই অবস্থায় কে হতে পারেন পরবর্তী মহাসচিব- তা নিয়ে শুরু হয়েছে তোলপাড়। জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, দলের চেয়ারম্যান তার মনোনীত ব্যক্তিকে মহাসচিব পদে নিয়োগ দিতে পারেন। সেক্ষেত্রে জাপা চেয়ারম্যান জি এম কাদেরের হাতে রয়েছে সর্বোচ্চ ক্ষমতা।

বিজ্ঞাপন

প্রথম দিকে মহাসচিব হওয়ার দৌড়ের আলোচনায় মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ, রুহুল আমিন হাওলাদার, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী ও সাইদুর রহমান টেপার নাম শোনা উঠে আসে। তবে শেষ পর্যন্ত জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের দলের অতিরিক্ত মহাসচিব ব্যারিস্টার শামীম পাটোয়ারীকে মহাসচিব নিয়োগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানা গেছে। আর এতে দলের সর্বোচ্চ পর্যায়সহ তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সোমবার (৪ অক্টোবর) বিকেলে কলাবাগানের একটি ভবনে দলের এমপি সাবেক মহাসচিব মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ, রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, কাজী ফিরোজ রশীদ, সাইদুর রহমান টেপাসহ কয়েকজন শীর্ষ নেতা বৈঠক করেছেন। জাপার সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এমপিও বৈঠকে যোগ দেন।

বিজ্ঞাপন

এসব বিষয় নিয়ে মশিউর রহমান রাঙ্গাঁ সারাবাংলাকে বলেন, ‘চেয়ারম্যান এককভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে দলের মহাসচিব নিয়োগ দিলে বনানী ও কাকরাইল কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হবে। সেইসঙ্গে সারাদেশে দলের চেয়ারম্যান জিএম কাদের ও শামীম হায়দার পাটোয়ারীর কুশপুত্তলিকা জ্বালানো হবে।’

আরও পড়ুন:

বিজ্ঞাপন

শামীম পাটোয়ারীকে মহাসচিব নিয়োগের ‘সিদ্ধান্তে’ জাপায় তোলপাড়

তিনি বলেন, ‘শিক্ষিত লোক হিসেবে শামীম হায়দার পাটোয়ারীকে দলের মহাসচিব নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা চলছে। তাই যদি হয়, তাহলে দলের চেয়ারম্যান ও উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত ব্যক্তিকে চেয়ারম্যান করতে হবে। জিএম কাদেরের সিদ্ধান্ত আমরা মানব না। তার চেয়েও শিক্ষিত-মেধাবী পলিটিশিয়ান জাতীয় পার্টিতে রয়েছেন। অনেক ত্যাগী শীর্ষ নেতা রয়েছেন। তাদের পাশ কাটিয়ে জিএম কাদেরের একক সিদ্ধান্ত মেনে নেব না। শামীম পাটোয়ারীকে দলের মহাসচিব নিয়োগ দিলে তাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হবে।’

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে অপর এক শীর্ষ নেতা বলেন, ‘জাতীয় পার্টি অগ্নিপরীক্ষার সম্মুখীন। জিএম কাদেরের এবং শামীম পাটোয়ারীর এই দলের জন্য কী অবদান আছে? আজ আমরা যারা এখানে বৈঠক করেছি, প্রত্যেকে দলের জন্য জেল খেটেছি, নির্যাতনের শিকার হয়েছি। এক সময় আমাদের বাড়িঘর লুট হয়েছ। হয়তো জিএম কাদের এসব ভুলে গেছেন। কারণ জাতীয় পার্টির দুর্দিনে তিনি কখনোই মাঠে-ঘাটে ছিলেন না। তিনি চেয়ার‌ম্যান হওয়ার পর পার্টিকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়েছেন।’

উল্লেখ্য, শামীম হায়দার পাটোয়ারী পেশায় একজন আইনজীবী। পাশাপাশি তিনি গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য। ২০১৮ সালে শূন্য আসনে উপ-নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এ ছাড়া জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএইচএইচ/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন