বিজ্ঞাপন

বিবাহ ব্যবস্থাকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা হবে: পলক

October 11, 2021 | 7:01 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে বিবাহ ও নিকাহ ব্যবস্থা ডিজিটাল করা হবে। সেজন্য ‘বন্ধন’ নামের একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করবে সরকার। সেখানে বিবাহ ও নিকাহর তথ্য দিতে হবে কাজিদের।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকালে রাজধানীর ব্রাক সেন্টার মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘শিশুশ্রম প্রতিরোধে প্রযুক্তির ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনারে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ তথ্য জানান।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, “আমরা বিবাহ ও নিকাহ ব্যবস্থাকে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসব। ‘বন্ধন ডট জিওবি’ নামে একটি প্ল্যাটফর্ম আমরা তৈরি করছি। সেখানে বিবাহ ও নিকাহ হওয়ার পর কাজিদের পাত্র-পাত্রী বা ডিভোর্স হওয়া ব্যক্তিদের বিভিন্ন তথ্য যোগ করতে হবে। তাদের ডিজিটাল ভেরিফিকেশন আইডি থাকতে হবে, আমরা ভেরিফাই করতে পারব।”

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘রেজিস্ট্রেশনের তথ্যগুলো প্ল্যাটফর্মে যুক্ত করতে হবে। অর্থাৎ ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসা হবে। এ জন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আরো আলোচনা করা হবে। প্রযুক্তির মধ্য দিয়ে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে সম্ভব। তবে এজন্য সবাইকে আগে সচেতন হতে হবে।’

অনুষ্ঠানে ন্যাশনাল এমার্জেন্সি সার্ভিসের ডিআইজি মোহাম্মদ তাবারক উল্লাহ বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ৯৯৯-এর মাধ্যমে ১১ হাজার ৬৬৮টি বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়েছি। সফলতার সঙ্গে আমরা তা প্রতিরোধ করেছি। তবে রাতে বেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পেতে বেগ পোহাতে হয়। সেক্ষেত্রে আমরা পুলিশ দিয়ে বিয়ে বন্ধ করাই। বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে প্রযুক্তি হিসাবে ৯৯৯ ব্যবহৃত হচ্ছে।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘আমরা ফোন করলে জনপ্রতিনিধিরা অনেক সময় ব্যস্ততা দেখায়। তারা অনেক সময় সহযোগিতা করেন না। বাল্য বিয়ের ক্ষেত্রে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা সহজ করলে পুলিশের জন্যও কাজটি সহজ হবে।’

অনুষ্ঠানে ব্রাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ, ব্রাকের পরিচালক নবনিতা চৌধুরী, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক নোভা আহমেদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন