বিজ্ঞাপন

ডেঙ্গু এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক

October 13, 2021 | 1:05 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ডেঙ্গু সংক্রমণ এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে উল্লেখ করে মশাবাহিত এই রোগ প্রতিরোধে প্রতি শনিবার বাসা-বাড়ি পরিষ্কার করতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, প্রতি শনিবার আমরা প্রত্যেকে যার যার বাসা-বাড়ি পরিষ্কার করব। দুর্গাপূজায় এটিই হোক আমাদের অঙ্গীকার। আপনারা সবাই দয়া করে নিজেদের বাসা-বাড়ি পরিষ্কার রাখবেন।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাতে মহাসপ্তমীতে মিরপুর কেন্দ্রীয় মন্দিরে দুর্গাপূজা পরিদর্শনে গিয়ে মেয়র এসব কথা বলেন। এসময় তিনি এবং ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আগা খান মিন্টু মন্দিরের শারদীয় সংকোলন ‘অর্ঘ্য’-এর মোড়ক উন্মোচন করেন। এলাকাবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র শ্মশানঘাটের জন্য ৮ কোটি টাকা অনুদানেরও ঘোষণা দেন।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- ‘অর্ঘ্য’র মোড়ক উন্মোচন, শ্মশানঘাটের জন্য ৮ কোটি টাকা অনুদান

ডেঙ্গু নির্মূলের বিষয়ে মেয়র আতিকুল বলেন, আমরা সিটি করপোরেশনের ৫৪টি ওয়ার্ডই ঘুরে দেখেছি। সব জায়গায় গিয়েছি। এমন কোনো ওয়ার্ড নেই, যেখানে যাইনি। সব ওয়ার্ড পরিদর্শন করে বলতে পারি, এখন ডেঙ্গু অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার কথা মনে করিয়ে দিয়ে মেয়র বলেন, করোনা যায়নি। আমাদের সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। আমরা সবাই মাস্ক পরলে করোনা দ্রুত চলে যাবে। প্রধানমন্ত্রী কিন্তু বিশ্বকে দেখিয়েছেন কীভাবে করোনা নিয়ন্ত্রণে আনতে হয়।

এর আগে পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করে মহাসপ্তমীতে আগত ভক্ত-দর্শনার্থীদের সঙ্গে সৌজন্যমূলক কথাবার্তা বলেন মেয়র আতিকুল। তিনি বলেন, ২০১৯ সালে একটি পূজার মণ্ডপে আমি ঢাক বাজিয়েছিলাম। তখন অনেকেই আমাকে বলেছিলেন, আমি কেন ঢাক বাজিয়েছিলাম! আমি তাদের বলেছি, কেন বাজাব না? আমি তো মেয়র হয়েছি সব ধর্মের মানুষের জন্য।

বিজ্ঞাপন
ডেঙ্গু এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে: মেয়র আতিক
বিজ্ঞাপন

মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা রয়েছে— র‌্যাব-পুলিশ সার্বক্ষণ নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে। আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা কাজ করছেন। আমি তাদের সবাইকে ধন্যবাদ দিতে চাই।

অনুষ্ঠানে মিরপুর কেন্দ্রীয় মন্দিরের সভাপতি অসীম কুমার রায় শিশির, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী সুকুমার শর্মা, মিডিয়া উপকমিটির আহ্বায়ক অরুণ কুমার ঘোষ ও শ্যামল হালদারসহ মন্দির কমিটির অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/এসএসএ/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন