বিজ্ঞাপন

সাপ দিয়ে স্ত্রী হত্যা, স্বামীর কারাদণ্ড

October 13, 2021 | 11:24 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের কেরালা রাজ্যে বিষধর গোখরা সাপ দিয়ে স্ত্রী হত্যার ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত স্বামী সুরজ কুমারকে দ্বিগুণ (ডাবল) যাবজ্জীবন কারাবাসের বিরল দণ্ড দিয়েছে আদালত।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, ২০২০ সালে স্ত্রী উথরা সাপের কামড়ে মারা যাওয়ার পর স্বামী সুরজ কুমারকে গ্রেফতার করেছিল রাজ্য পুলিশ। পরে, উথরার পরিবার হত্যার অভিযোগ করলে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। যৌতুকের জন্য উথরা এবং পরিবারকে হয়রানি করছিল সুরজ। মে মাসে ২৫ বছর বয়সী উথরাকে তার বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। এর মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই উথরাকে একটি রাসেল ভাইপার সাপ কামড়েছিল। সেই কামড় সামলে উঠতে না উঠতেই উথরার আবার গোখরা সাপের কবলে পড়ার ঘটনায় তার পরিবারের সদস্যদের মনে সন্দেহ জাগে।

তদন্ত শেষে পুলিশ জানিয়েছে, সাপের কামড়ের দুই ঘটনার পেছনেই সুরজের হাত রয়েছে। সুরজকে সাপ সংগ্রহে সহায়তা করেছেন এমন একজনকেও পুলিশ পাকড়াও করেছিল। ওই ব্যক্তি পরে বিষয়টি স্বীকার করে নেন এবং পুলিশকে মামলার জট খুলতে সাহায্য করেন। পুলিশ সুরজের স্ত্রী-হত্যাকাণ্ড নিয়ে এক হাজার পৃষ্ঠার একটি তদন্ত প্রতিবেদন তৈরি করেছে। এতে সুরজের পুরো হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা এবং তা বাস্তবায়নের বিস্তারিত বর্ণনা দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে, উথরা ঘুমানোর সময় বিছানায় গোখরা সাপ ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগে আদালত সুরজকে দোষী সাব্যস্ত করেছে।

বাদি পক্ষের আইনজীবীরা সংবাদ মাধ্যমকে জানান, এ এক বিরল ঘটনা। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের মৃত্যুদণ্ড দাবি করেছিলেন তারা। বিচারকও একমত হন যে, ঘটনাটি বিরল। তার প্রেক্ষিতেই সুরজকে ডাবল বা দ্বিগুণ যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার রূপি জরিমানা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন