বিজ্ঞাপন

দিল্লিকে বিদায় করে ফাইনালে সাকিবদের কলকাতা

October 13, 2021 | 11:53 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

জয়ের জন্য ১৩৫ রানের জবাব দিতে নেমে ১ উইকেটে ১২৩ রান তোলা কলকাতা নাইট রাইডার্স শেষ দিকে হঠাৎ-ই যেন খেই হারিয়ে ফেলল। রাহুল ত্রিপাতি, দিনেশ কার্তিকরা রান তুলতে পারছিলেন না, আবার উইকেটও পড়ছিল টপাটপ। একের পর এক ডট বল খেলে শেষ দিকে বড় চাপেই পড়ে কলকাতা। তবে সেই চাপ কাটিয়ে কলকাতাকে স্বপ্নের জয় এনে দিয়েছেন ত্রিপাতিই। শেষ ওভারে দরকার ছিল ৬ রান। প্রথম চার বলে সাকিব আল হাসান ও সুনিল নারিনের উইকেট হারিয়ে মাত্র ১ রান তুলতে পারে কলকাতা। শেষ দুই বলে করতে হতো ৬ রান। পঞ্চম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে কলকাতাকে ফাইনালে তোলেন ত্রিপাতি।

বিজ্ঞাপন

এমন বিদায় দিল্লি ভক্তদের বেশিই পোড়াবে। দুর্দান্ত পারফর্ম করা দলটি এখন পর্যন্ত চলতি আইপিএলে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জিতেছে। প্রথম পর্বের ১৪ ম্যাচের ১০টিতেই জিতেছে দিল্লি।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শেষ পর্যন্ত ১৪তম আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ৩ উইকেটের জয় পেয়েছে কলকাতা। আগামী পরশু ফাইনাল খেলতে নামবে সাকিবদের দল। যেখানে আগেই উঠে বসে আছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস।

বিজ্ঞাপন

কলকাতাকে যে এতো কঠিন সমীকরণে পড়তে হবে সেটা মনে হচ্ছিল না। ১৩৫ রানের জবাব দিতে নেমে ওপেনিংয়ে ৯৬ রান তোলেন দুই তরুণ শুভমান গিল ও ভেঙ্কটেশ আইয়ার। ৪১ বলে ৪টি চার ৩টি ছয়ে ৫৫ রান করে কাজের কাজটা করে দিয়েছেন আইয়ার।

কিন্তু আইয়ার ফেরার পরই কলকাতার ইনিংসে যেন মড়ক লাগল! দলীয় ১২৩ রানের মাথায় নিতিশ রানার (১৩) উইকেট হারানো কলকাতা এরপর ৭ রান তুলতে হারায় ৬ উইকেট! ইয়ান মর্গান, দিনেশ কার্তিক ৩টি করে বল খেলে শূন্য রানে আউট হয়েছেন। সাকিবও শূন্য রানে ফিরেছেন ২ বল খেলে। একটা সময় ম্যাচের পাল্লা দিল্লির দিকেই ভারি মনে হচ্ছিল। ইনিংস শেষ হওয়ার এক বল আগে ছক্কা হাঁকিয়ে বিপদ থেকে দলকে ফাইনালে তুলেছেন ত্রিপাতি। ১১ বলে ১২ রান করে অপরাজিত ছিলেন তরুণ ক্রিকেটার। শুভমান গিল ৪৬ বলে ১টি করে চার-ছয়ে ৪৬ রান করেছেন। দিল্লির হয়ে অ্যানরিচ নর্টজে ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এর আগে কলকাতা দুর্দান্ত দিল্লিকে ১৩৫ রানে আটকে রেখেছে স্পিন ছকেই। শুরুতে সাকিব আল হাসান এবং মাঝের ওভারগুলিতে দুর্দান্ত বোলিং করেন সুনীল নারিন ও বরুন চক্রবর্তী। পেসার লোকি ফার্গুসন ও শিভাম মাভিও দারুণভাবে আটকে রাখতে পেরেছিলেন দিল্লির তরুণদের। যাতে রানের জন্য হাঁসফাঁস করতে থাকা দিল্লির ব্যাটাররা বড় জুটি গড়তে পারেনি।

উইকেটে অনেকক্ষণ থাকলেও বড় স্কোর গড়তে পারেননি শিখর ধাওয়ান, শ্রেয়াস আয়াররা। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৩৫ রান তোলে দিল্লি। সর্বোচ্চ ৩৬ রান করতে ৩৯ বল খেলেছেন শিখর ধাওয়ান। ২৭ বলে ৩০ রান করে অপরাজিত ছিলেন শ্রেয়াস আয়ার। কলকাতার হয়ে বরুন চক্রবর্তী দুটি ও শিভম মাভি, লোকি ফার্গুসন একটি করে উইকেট নিয়েছেন। সাকিব আল হাসান চার ওভারে ২৮ রান খরচায় উইকেট পাননি।

বিজ্ঞাপন

ভারতের আয়োজনে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবারের বিশ্বকাপের সবকটি ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে দেশের জনপ্রিয় স্যাটেলাইট চ্যানেল জিটিভি। এছাড়াও বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম র‍্যাবিটহোলের ওয়েবসাইটে দেখা যাবে বিশ্বকাপের খেলা। অনলাইনে র‍্যাবিটহোলে খেলা দেখতে ব্রাউজ করুন https://www.rabbitholebd.com/

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন