বিজ্ঞাপন

লেভান্ডোফস্কির হ্যাটট্রিকে বায়ার্নের জয়, বার্সাকে জেতালেন ফাতি

November 3, 2021 | 9:28 am

স্পোর্টস ডেস্ক

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে বেনফিকার বিপক্ষে নিজের শততম ম্যাচ খেলতে মাঠে নেমেছিলেন রবার্ট লেভান্ডোফস্কি। আর শততম ম্যাচটি হ্যাটট্রিক দিয়ে রাঙালেন লেভা। তার হ্যাটট্রিকেই বেনফিকাকে ৫-২ গোলে বিধ্বস্ত করে রাউন্ড অব-১৬ নিশ্চিত করল বাভারিয়ানরা। এদিকে ভুগতে থাকা বার্সেলোনাকে ডায়নামো কিয়েভের বিপক্ষে জয় এনে দিয়েছেন আনসু ফাতি।

বিজ্ঞাপন

অ্যালিয়েঞ্জ অ্যারেনায় মঙ্গলবার রাতের ম্যাচে পেনাল্টি মিসও করেছিলেন লেভান্ডোফস্কি। তবে তাতেও মিস হয়নি হ্যাটট্রিক।

ম্যাচের ২৬তম মিনিটে হেডে বল জালে জড়িয়ে প্রথম গোলটি করেন লেভা। ছয় মিনিট পর তার বাড়ানো বল থেকেই ব্যাকহিলে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জ গ্ন্যাব্রি। এরপর ৩৮তম মিনিটে রদ্রিগেজ দা সিলভা স্কোরলাইন ২-১ করেন। বিরতির ঠিক আগে লেভান্ডোফস্কি ব্যবধান আবারও বাড়ানোর সহজ সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু স্পট কিক থেকে তার নেওয়া দুর্বল শট রুখে দেন বেনফিকা গোলরক্ষক।

বিজ্ঞাপন

বিরতির পর ম্যাচ শুরু হতেই হাফ ভলিতে ব্যবধানটাকে দুই গোলে বাড়িয়ে নেন লেরয় সানে। আর ম্যাচের ঘড়ির কাটায় ঠিক এক ঘন্টা পর চিপ শটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন পোলিশ স্ট্রাইকার। ৭৪তম মিনিটে দারউইন নুনেস আবারও ব্যবধান কমান। তবে তাতে ম্যাচে কোনো বাড়তি নাটকীয়তা আসেনি। এর ১০ মিনিট পরই হ্যাটট্রিক পূরণ করেন লেভা। ইউরোপ সেরার মঞ্চে পোলিশ তারকার গোল হলো ৮১টি, চারটি হ্যাটট্রিকসহ।

চলতি মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে বায়ার্নের হয়ে ১৮ ম্যাচে ২২ গোল করলেন তিনি। এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে করলেন সর্বোচ্চ আটটি।

বিজ্ঞাপন

লেভান্ডোফস্কির হ্যাটট্রিকে বায়ার্নের জয়, বার্সাকে জেতালেন ফাতি

এদিকে, বাজে সময়ের মধ্য দিয়ে যাওয়া বার্সেলোনা সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে তিন ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল। লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ ও রায়ো ভায়োকানোর বিপক্ষে হারের পর দলের টানা ব্যর্থতার দায় মাথায় নিয়ে চাকরি হারান তখনকার কোচ রোনাল্ড কোম্যান। গত বৃহস্পতিবার অন্তর্বর্তীকালীন কোচের দায়িত্ব পাওয়া সের্জিও বারজুয়ানের কোচিংয়ে প্রথম ম্যাচে লিগে আলাভেজের সঙ্গে ১-১ ড্র করে দলটি।

বিজ্ঞাপন

চ্যাম্পিয়নস লিগে বায়ার্ন মিউনিখ ও বেনফিকার বিপক্ষে প্রথম দুই ম্যাচেই ৩-০ গোলে হেরে খাদের কিনারায় চলে গিয়েছিল বার্সেলোনা। এরপর ডায়নামোর বিপক্ষেই তারা পেল দুই জয়। গত মাসে ঘরের মাঠেও জয় ছিল একই ব্যবধানে।

ম্যাচের ৭০তম মিনিট এগিয়ে যায় তারা। ডান দিক থেকে মিনগেসার ক্রসে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে বল পেয়ে যান ফাতি। ১০ গজ দূর থেকে ডান পায়ের জোরালো শটে জাল খুঁজে নেন তরুণ ফরোয়ার্ড। স্বাভাবিকভাবেই চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটি বার্সেলোনার দ্বিতীয় গোল। গত মাসে ডায়নামোর বিপক্ষে ঘরের মাঠে একমাত্র গোলটি করেছিলেন ডিফেন্ডার পিকে।

বিজ্ঞাপন

চার ম্যাচে চার জয়ে তাদের পয়েন্ট ১২। দিনের আরেক ম্যাচে ডায়নামো কিয়েভকে ১-০ গোলে হারানো বার্সেলোনা ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে। তিন নম্বরে বেনফিকার পয়েন্ট ৪। তলানিতে দিনামোর পয়েন্ট ১।

দিনের অন্য ম্যাচে ঘরের মাঠে জেনিত সেন্ট পিটার্সবার্গকে ৪-২ গোলে হারিয়ে ‘এইচ’ গ্রুপ থেকে প্রথম দল হিসেবে নকআউট পর্বে জায়গা করে নিয়েছে জুভেন্টাস। দুটি গোল করার পাশাপাশি সতীর্থের একটি গোলে অবদান রেখে তাদের জয়ের নায়ক আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা। অন্য দুটি গোল করেন ফেদেরিকো চিয়েসা ও আলভারো মোরাতা। আরেক ম্যাচে মালমোকে ১-০ গোলে হারানো শিরোপাধারী চেলসি ৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে। ৪ ম্যাচে শতভাগ সাফল্যে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে জুভেন্টাস। জেনিতের পয়েন্ট ৩, মালমোর শূন্য।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন