বিজ্ঞাপন

রিয়ালের ১০০০তম গোলের রাতে বেনজেমার জোড়ায় মিলল জয়

November 4, 2021 | 1:40 am

স্পোর্টস ডেস্ক

ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার টুর্নামেন্ট উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সবচেয়ে সফলতম ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ। সর্বাধিক শিরোপা জয় করে সফলতম ক্লাব তো আগে থেকেই। এবার নতুন এক মাইলফলক অর্জন করল লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথম দল হিসাবে ১০০০ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করল রিয়াল মাদ্রিদ। ঘরের মাঠে শাখতার দোনেৎস্কের বিপক্ষে ম্যাচের ১৪তম মিনিটে করিম বেনজেমার করা গোলে এই মাইলফলক স্পর্শ করে রিয়াল। শেষ পর্যন্ত বেনজেমার জোড়া গোলে ২-১ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে লস ব্ল্যাঙ্কোসরা।

বিজ্ঞাপন

ঘরের মাঠে শাখতারের বিপক্ষে মাঠে নামার আগের লেগে ৫-০ গোলের ব্যবধানে জিতেছিল রিয়াল। অনুমেয় ছিল ঘরের মাঠে সহজেই জয় পায় লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। তবে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ১৪তম মিনিটে ভিনিসিয়াস জুনিয়রের অ্যাসিস্ট থেকে গোল করে রিয়ালকে লিড এনে দেন করিম বেনজেমা। পরে প্রথমার্ধের শেষ দিকে এসে ফার্নান্দোর গোলে সমতায় ফেরে শাখতার। আর দ্বিতীয়ার্ধের ৬১তম মিনিটে ভিনিসিয়াসের দ্বিতীয় অ্যাসিস্ট থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করে দলকে দ্বিতীয়বারের মতো লিড এনে দেন বেনজেমা। শেষ পর্যন্ত ওই ব্যবধানেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল।

রিয়ালের ১০০০তম গোলের রাতে বেনজেমার জোড়ায় মিলল জয়

বিজ্ঞাপন

এই জয়ে গ্রুপ-ডি'র শীর্ষে উঠেছে রিয়াল। নিজেদের চার ম্যাচের তিনটিতে জিতে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রিয়াল। তিন ম্যাচে দুটি জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে এফসি শেরিফ, ৪ পয়েন্ট নিয়ে ইন্টার মিলান তিনে আর ১ পয়েন্ট পাওয়া শাখতার দোনেৎস্ক আছে গ্রুপের একদম তলানিতে।

ঘরের মাঠে শুরুতেই দারুণ দুটি সুযোগ হাতছাড়া করে রিয়াল। আর এর খেসারত প্রায় দিতে হয়েছিল যদি না গোলপোস্ট ত্রাতা হয়ে আসতো। ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় শাখতার মিডফিল্ডার অ্যালান প্যাট্রিকের দারুণ এক শট থিবো কোর্তোয়াকে পরাস্ত করলেও গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। আর এযাত্রায় রক্ষা পায় স্বাগতিকরা।

বিজ্ঞাপন

তবে এর মিনিট চারেক পরে ভিনিসিয়াস জুনিয়র দৌড়ে এসে ডি বক্সের ভেতর থেকে শাখতারের ডিফেন্ডারের কাছ থেকে বল কেড়ে নিয়ে বাই লাইন থেকে বেনজেমার উদ্দেশে বল বাড়িয়ে দেন। গোলমুখে খালি জায়গায় বল পেয়ে বেনজেমা কেবলই পায়ের আলতো ছোঁয়ায় বল জালে পাঠিয়ে দেন। আর এতেই রিয়াল পেয়ে যায় ১-০ গোলের লিড।

চ্যাম্পিয়নস লিগে এটি আবার রিয়ালের ১০০০তম গোল। এর আগে ইউরোপিয়ান ক্লাব কম্পিটিশনে রিয়ালের হয়ে প্রথম গোলটি করেন স্প্যানিশ কিংবদন্তি ফুটবলার মিগুয়েল মুনেজ, ১০০তম গোল করেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি আলফ্রেড ডি স্টেফানো, ২০০তম গোল করেন হাঙ্গেরির কিংবদন্তি ফেরেঙ্ক পুস্কাস, ৩০০তম গোল করেন ডাচ ফুটবলার হেনিং জেনসেন, ৪০০তম গোল আসে সেবাস্তিয়ান লোসাডার পা থেকে। এরপর ৫০০তম গোল করেন গুতিয়ারেজ হার্নান্দেজ, ৬০০তম গোল করেন ডেভিড বেকহাম, ৭০০তম গোল আসে গঞ্জালো হিগুয়েনের পা থেকে। এরপর ৮০০ ও ৯০০তম গোল করেন পর্তুগিজ কিংবদন্তি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আর ১০০০তম গোলটি করলেন করিম বেনজেমা।

বিজ্ঞাপন

রিয়ালের ১০০০তম গোলের রাতে বেনজেমার জোড়ায় মিলল জয়

প্রথমার্ধের ছয় মিনিট বাকি থাকতে শাখতারকে সমতায় ফেরান ফার্নান্দো। বিরতির পর দারুণ ফুটবল খেলতে থাকে শাখতার। তবে ভিনিসিয়াস জুনিয়রের দুর্দান্ত এক মুহূর্তে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় শাখতারের রক্ষণ। একাই রাশিয়ান ক্লাবটির রক্ষণকে পরাস্ত করে বল বাড়িয়ে দেন করিম বেনজেমা। তরুণ এই ব্রাজিলিয়ানের কাছ থেকে বল পেয়ে বাকি কাজটা সারেন বেনজেমা। এতেই ২-১ গোলের লিড পায় রিয়াল মাদ্রিদ।

বিজ্ঞাপন

চলতি মৌসুমে এটি বেনজেমার সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৩তম গোল। নামের পাশে আছে আরও ৭টি অ্যাসিস্ট। আর ভিনিসিয়াস জুনিয়র ৯ গোলের পাশাপাশি করেছেন পাঁচটি অ্যাসিস্টও।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন