বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্ক বইমেলার বিরুদ্ধে অপপ্রচার রুখতে ১০০ বিশিষ্টজনের বিবৃতি

November 26, 2021 | 12:09 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

‘আমরা অত্যন্ত উদ্বেগ ও ক্ষোভের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, নিউইয়র্কে বাংলাদেশি কমিউনিটির এক গৌরবময় উৎসব, দীর্ঘদিনের পরিশ্রম ও নিষ্ঠার সাথে গড়ে তোলা বাংলা বইমেলা আজ একটি মহল বিশেষ বা ব্যক্তি বিশেষের বিদ্বেষ ও অপপ্রচারের কবলে পড়েছে। বইমেলার আয়োজক সংস্থা মুক্তধারা ফাউন্ডেশন এবং মেলার একনিষ্ঠ সংগঠক বিশ্বজিত সাহার
বিরুদ্ধে অবমাননাকর একটি ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ধরনের আকস্মিক ও অনভিপ্রেত ঘটনায় আমরা ক্ষুব্ধ ও মর্মাহত।‘

বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্ক বইমেলা ঘিরে সকল অপপ্রচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে উত্তর আমেরিকার ১০০ বিশিষ্ট ব্যক্তি গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি পাঠিয়েছেন। ওই বিবৃতিতে এসব কথা বলা হয়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ঘটনাটি নিয়ে আমরা নিজেরা ব্যাপকভাবে অনুসন্ধান করেও এর কোনো ভিত্তি খুঁজে পাইনি। অভিযোগ দায়ের করা মহিলার কোন হদিস আমরা পাইনি। বরঞ্চ আমাদের অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে অজ্ঞাত এই মহিলার নামে মামলা দায়ের করা, পেছনের এক ব্যক্তির নাম। যে নামটি আমাদের কমিউনিটিতে নিন্দিত ও ধিকৃত, সমাজের কোনো ধরনের কর্মকাণ্ডে যে ব্যক্তিটির কোনো অংশগ্রহণ নেই, সমাজের কল্যাণে যার সামান্যতম কোনো অবদান নেই।’

বিজ্ঞাপন

বরঞ্চ সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অর্থ কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে দাবি করে বিবৃতিতে বলা হয়, তাকে কারাভোগও করতে হয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে অহেতুক নানা অজুহাতে নানা জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কমিউনিটিকে বিড়ম্বিত করার। তার একটি নিন্দিত মামলা ছিল বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপিকে নিয়ে। যে মামলায় তিনি এক অভিনব পন্থায় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপিকে তার ব্যক্তি মালিকানায় একটি প্রাইভেট কোম্পানিতে পরিণত করতে উদ্যোগ নিয়েছিলেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধেও আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করে পরাজিত হন। মামলাবাজ এই ব্যক্তিই কয়েক বছর আগে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে গুলশান টেরেসে বাংলাদেশ সোসাইটি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তৃতা করার সুযোগ নিয়ে বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয়কে ভারতীয় ষড়যন্ত্রের পরিণতি এবং পাকিস্তানকে ভেঙে দেওয়ার লক্ষ্যে নেহেরুর পরিকল্পনার বাস্তবায়ন বলে উল্লেখ করেছিলেন এবং শ্রোতাদের তীব্র রোষানলের মুখে নেমে আসতে বাধ্য হয়েছিলেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা লক্ষ্য করছি সমাজকে ক্ষতিগ্রস্ত করার লক্ষ্যে তৎপর এই ব্যক্তি একের পর এক আঘাত হেনে চলেছে সমাজের কল্যাণকর কর্মকাণ্ডের ওপর, সকল শুভ ও মঙ্গলময় অর্জনগুলোর ওপর। প্রতিবছর মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত এবং দীর্ঘদিনের লালিত বাংলা বইমেলা আমাদের কমিউনিটির এমনই একটি মহৎ অর্জন বলে আমরা মনে করি। এই বইমেলাও আজ ওই দুষ্টচক্রের শ্যেন দৃষ্টিতে পড়েছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে দেশ ও বিদেশের সকল সচেতন মানুষ ও উত্তর আমেরিকার কমিউনিটির সকলের প্রতি আমাদের আবেদন, সমাজের ক্ষতি সাধনে লিপ্ত এই দুষ্টচক্রকে প্রতিহত করুন। এদেরকে বর্জন করুন। শুভ, সুন্দর ও কল্যাণের পথে সমাজকে এগিয়ে নিন।

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী ব্যক্তিরা হলেন-
১. রথীন্দ্রনাথ রায়, শিল্পী, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র
২. ড. সিদ্দিকুর রহমান, সভাপতি, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ
৩. মুহম্মদ ফজলুর রহমান, লেখক ও সাংবাদিক
৪. মনজুর আহমেদ, লেখক ও সাংবাদিক
৫. তাজুল ইমাম, লেখক, শিল্পী, মুক্তিযোদ্ধা
৬. মেজর অবঃ আহসান উল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধা
৭. আবেদীন কাদের, লেখক ও প্রাবন্ধিক
৮. রেখা আহমেদ, নাট্যশিল্পী
৯. ফখরুল ইসলাম রচি, লেখক
১০. তমিজউদ্দীন লোদী, কবি
১১. শামস আল মমীন, কবি
১২. শাহাব আহমেদ, লেখক (ফ্লোরিডা)
১৩. ফকির ইলিয়াস, কবি ও প্রাবন্ধিক
১৪. হুমায়ূন কবীর, লেখক (টেনেসি)
১৫. ইশতিয়াক রূপু, লেখক
১৬. রতন তালুকদার, সম্পাদক, জন্মভূমি
১৭. লাবলু আনসার, নির্বাহী সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রতিদিন উত্তর আমেরিকা
১৮. ইব্রাহীম চৌধুরী, সাংবাদিক, লেখক
১৯. জাকারিয়া মাসুদ জিকো, সম্পাদক, আজকাল
২০. মনোয়ারুল ইসলাম, ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক
২১. দর্পণ কবীর, লেখক ও সাংবাদিক
২২. কাজী মশহুরুল হুদা, সভাপতি, লিটল বাংলাদেশ প্রেসক্লাব অব লস এঞ্জেলেস
২৩. আকবর হায়দার কিরন, সাংবাদিক
২৪. তোফাজ্জল লিটন, নাট্যকার ও সাংবাদিক
২৫. এম ডি আব্দুল হামিদ, সম্পাদক, ইউএস বাংলা ২৪ডটকম
২৬. মোহাম্মদ আজিজ,চেয়ারম্যান,বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউইয়র্ক বোর্ড অব ট্রাস্টি
২৭. আব্দুস সামাদ আজাদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ
২৮. ড. আব্দুল বাতেন, আহ্বায়ক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ
২৯. রেফায়েত চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদ
৩০. জুনায়েদ আকতার, ভাইস চেয়ারপারসন, ফ্লোরিডা ডেমোক্রেটিক পার্টি
৩১. ঝর্ণা চৌধুরী, প্রতিষ্ঠাতা, বাংলাদেশ থিয়েটার অব আমেরিকা
৩২. মোশাররফ হোসেন, পরিচালক, সাহিত্য একাডেমি, নিউ ইয়র্ক
৩৩. রুহুল আমিন সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ সোসাইটি
৩৪. জয়নুল আবেদীন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ সোসাইটি
৩৫. কাজী আশরাফ হোসেন (নয়ন), সভাপতি প্রার্থী, বাংলাদেশ সোইটি
৩৬. আব্দুর রব মিয়া, সভাপতি পদপার্থী, বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউইয়র্ক
৩৭. নুরুল আমিন বাবু, সভাপতি, বাংলাদেশ ক্লাব, সহ–সাধারণ সম্পাদক মহানগর আওয়ামী লীগ যুক্তরাষ্ট্র
৩৮. তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, উপদেষ্টা, জালালাবাদ এসোসিয়েশন
৩৯. শিবলী সাদিক, সভাপতি, প্রজন্ম ৭১
৪০. মনিকা রায়, সভাপতি, শিল্পকলা একাডেমী ইউএস ইঙ্ক
৪১. আবু তালেব চৌধুরী চান্দু, সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় পার্টি যুক্তরাষ্ট শাখা
৪২. হাজী আব্দুর রহমান, সভাপতি, জাতীয় পার্টি যুক্তরাষ্ট শাখা
৪৩. নূরে আলম জিকো, সাধারণ সম্পাদক, জাসদ যুক্তরাষ্ট শাখা
৪৪. দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী, সভাপতি,জাসদ যুক্তরাষ্ট শাখা
৪৫. জাকির এইচ চৌধুরী, জাতীয়তাবাদী দল যুক্তরাষ্ট শাখা
৪৬. আব্দুল গাফফার খসরু, সভাপতি, ব্রঙ্কস বাংলাদেশ সোসাইটি
৪৭. মমিনুল হক বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ আমেরিকান ডেমোক্রেটিক পার্টি (লস এঞ্জেলেস)
৪৮. মোহাম্মদ শামীম হোসেন, সভাপতি, ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগ
৪৯. রানা হাসান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক, ক্যালিফোর্নিয়া বঙ্গবন্ধু পরিষদ
৫০. ড. ইউনুস রাহী, প্রকৌশলী (লস এঞ্জেলেস)
৫১. সাব্বির আহমেদ, এটর্ণী এট ল (লস এঞ্জেলেস)
৫২. শিপার আহমেদ, সভাপতি, বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস
৫৩. তৌফিক সোলায়মান তুহিন, সভাপতি, লস এঞ্জেলেস আওয়ামী লীগ
৫৪. নাজমুল চৌধুরী, সহ সভাপতি, ক্যালিফোর্নিয়া স্টেট আওয়ামী লীগ
৫৫. শফি আহমেদ, সমাজ কর্মী (লস এঞ্জেলেস)
৫৬. আহনাফ আলম, প্রেসিডেন্ট, ডেমোক্রেটিক ক্লাব ইয়ুথ ফোরাম
৫৭. তারেক জামান, প্রধান নির্বাহী, সেফ রাইজ ফাউন্ডেশন
৫৮. স্বীকৃতি বড়ুয়া, সাধারণ সম্পাদক, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি, নিউ ইয়র্ক
৫৯. গোপাল সান্যাল, সভাপতি, সুচিত্রা সেন মেমোরিয়াল ইউএসএ
৬০. মাহবুব রহমান, লেখক
৬১. বিপ্লব দত্ত, কবি (হিউস্টন)
৬২. ফারহান ইলিয়াস তুলি, কবি
৬৩. সৈয়দ মামুনুর রশীদ, কবি
৬৪. কামরুন জিনিয়া, লেখক ও সম্পাদক (লুইজিয়ানা)
৬৫. আশফাক আমিন অঞ্জন, আলোকচিত্র শিল্পী
৬৬. মিশুক সেলিম, কবি
৬৭. খালেদ সরফুদ্দীন, কবি
৬৮. আবু সাঈদ রতন, লেখক
৬৯. গোপন সাহা, সংস্কৃতি কর্মী
৭০. সৈয়দ খিজির হায়াত, কবি
৭১. আহমেদ ছহুল, কবি
৭২. বিভাস মল্লিক, সংস্কৃতি কর্মী
৭৩. শেখ সোয়েব সাজ্জাদ, সংস্কৃতি কর্মী
৭৪. স্বপ্নীল ফিরোজ, কবি (ট্যাক্সাস)
৭৫. সৈয়দ আহমেদ জুয়েদ, কবি
৭৬. আনোয়ার সেলিম, কবি
৭৭. জলি কর, সঙ্গীত শিল্পী
৭৮. আলী সিদ্দিকী, কবি (পেনসেলভেনিয়া)
৭৯. রূপা খানম, লেখক
৮০. এম ডি আব্দুল্লাহ, ফার্মাসিস্ট
৮১. সোনিয়া কাদের, কবি
৮২. শামস চৌধুরী রুশো, কবি
৮৩. আবুল ফজল, শিল্পী (পেনসিলভেনিয়া)
৮৪. বিমল সরকার, কবি (অস্টিন)
৮৫. আসলাম আহমেদ খান, সংস্কৃতি কর্মী
৮৬. আলম সিদ্দকী, লেখক
৮৭. মঞ্জুর কাদের, লেখক ও ছড়াকার
৮৮. পলি শাহীনা, কবি
৮৯. শিরীন বকুল, অভিনয়শিল্পী
৯০. ফেরদৌস খান, সংস্কৃতি কর্মী
৯১. ফেরদৌসী বেগম, কবি
৯২. এন্থনী পিউশ গোমেজ, লেখক–সম্পাদক (ভার্জিনিয়া)
৯৩. জেবুন্নেছা জোৎস্না, কবি
৯৪. মোল্লা বাহাউদ্দিন পিয়াল, আবৃত্তি শিল্পী (কানেকটিকাট)
৯৫. শামীম রেজা নূর, মুক্তিযোদ্ধা
৯৬. শাহীদ রেজা নূর, সংস্কৃতি কর্মী
৯৭. আইরিন রহমান, লেখক
৯৮. মুশফিকা পলি, সংস্কৃতি কর্মী
৯৯. খুরশিদ জাহান জলি, সংগীত শিল্পী
১০০. তন্ময় হাসান, শিক্ষক

সারাবাংলা/এএম

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন