বিজ্ঞাপন

৭ম বারের মতো ব্যালন ডি অর জিতলেন মেসি

November 30, 2021 | 2:53 am

স্পোর্টস ডেস্ক

গুঞ্জন ছিল সপ্তমবারের মতো ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদার এই পুরস্কার জিততে চলেছেন লিওনেল মেসি। তবে অনেকেই বলছিলেন ব্যালন ডি'অর জিতবেন রবার্ট লেভান্ডোফস্কি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সপ্তমবারের মতো ব্যালন ডি অর ঘরে তুললেন লিওনেল মেসি। এদিকে লিওনেল মেসির পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যালন ডি অর জয়ী ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবারে ছয় নম্বরে থেকে শেষ করেছেন ব্যালন ডি অর দৌড়। নারী ব্যালন ডি অর এবার উঠেছে বার্সেলোনার অ্যালেক্সিয়া পিউতেলাসের হাতে।

বিজ্ঞাপন

প্রথমবারের মতো ফ্রান্স ফুটবল প্রদান করল বছরের সেরা ফরোয়ার্ডের পুরষ্কার। ২০২১ সালটা দুর্দান্ত পার করার পুরষ্কার স্বরূপ বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেভান্ডোফস্কির হাতে ওঠে এই পুরষ্কার। ব্যালন ডি অরের তালিকাতে দ্বিতীয় হয়ে থেমেছেন লেভান্ডোফস্কি। বছরের সেরা গোলরক্ষকের পুরষ্কার অর্থাৎ লেভ ইয়াসিন ট্রফি জিতেছেন ইউরো-২০২০ এর সেরা ফুটবলার জিয়ানলুইগি ডনারুমা।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ২০২১ সালের সেরা ক্লাবের পুরষ্কার প্রদান করেছে ফ্রান্স ফুটবল। এবছর চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় করা চেলসির হাতে ওঠে প্রথমবারের মতো সেরা ক্লাবের পুরষ্কারটি।

বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জয়ের রেকর্ডটা আগে থেকেই মেসির। সংখ্যাটাকে আরও বাড়িয়ে নিলেন এই মহাতারকা। রেকর্ড সাতবার, যেন সবার ধরাছোঁয়ার বাইরে! দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচবার পুরস্কারটি জিতেছেন আগামী ফেব্রুয়ারিতে ৩৭ বছরে পা দিতে যাওয়া ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এখনও খেলছেন এমন ফুটবলারদের মধ্যে পুরস্কারটি আর জিতেছেন কেবল ৩৬ বছর বয়সী লুকা মদ্রিচ, একবার ২০১৮ সালে।

বিজ্ঞাপন

আগের ছয়বার মেসি এই পুরস্কার জিতেছেন-২০০৯, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৫ ও ২০১৯ সালে। আগের ছয়বারই এই স্বীকৃতি তিনি পেয়েছেন বার্সেলোনায় থাকাকালীন।

বার্সেলোনার সঙ্গে দীর্ঘ ২১ বছরের সম্পর্ক শেষে গত অগাস্টে পিএসজিতে যোগ দেন মেসি। কাতালান ক্লাবটিতে বিদায়ী মৌসুমটা তার খুব ভালো কাটেনি। তবে ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে তিনি বরাবরের মতোই ছিলেন উজ্জ্বল। লা লিগায় সর্বোচ্চ ৩০ গোল করে রেকর্ড অষ্টমবারের মতো জেতেন পিচিচি ট্রফি। আর কোপা দেল রের ফাইনালে অ্যাথলেটিক ক্লাব বিলবাওয়ের বিপক্ষে ৪-০ ব্যবধানে জয়ে জোড়া গোল করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

এরপর গত জুলাইয়ে ব্রাজিলকে তাদের মাঠেই হারিয়ে আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা জয়ে নেতৃত্ব দেন মেসি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে দেশের ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানোর মিশনে চার গোল করে ও পাঁচটি করিয়ে সামনে থেকে পথ দেখান তিনি। আসরে ব্রাজিলের নেইমারের সঙ্গে যৌথভাবে সেরা খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হন ৩৪ বছর বয়সী তারকা।

৭ম বারের মতো ব্যালন ডি অর জিতলেন মেসি

বিজ্ঞাপন

এদিকে ২০২১ ব্যালন ডি অরে দ্বিতীয় হয়েছেন রবার্ট লেভান্ডোফস্কি। ইতালির হয়ে ইউরো আর চেলসির হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় করা জর্জিনিয়ো শেষ করেছেন তিন নম্বরে থেকে।

রিয়াল মাদ্রিদ এবং ফ্রান্সের হয়ে গোলমুখে আরও একটি দুর্দান্ত মৌসুম করিম বেনজেমার। আর এতেই তিনি শেষ করেছেন চার নম্বরে থেকে। চেলসির হয়ে দুর্দান্ত এক মৌসুম পার করা এনগোলো কান্তে শেষ করেছেন পাঁচে থেকে।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পর্তুগিজ মহাতারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবারে শেষ করেছেন ছয় নম্বরে থেকে। লিভারপুলের মিশরীয় ফরোয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ ৭ম হয়েছেন। ম্যানচেস্টার সিটির বেলজিয়ান মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইন হয়েছেন ৮ম।

২০২১ সাল দুর্দান্ত কেটেছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড কিলিয়ান এমবাপের। দুর্দান্ত এই বছরে তিনি পিএসজির হয়ে লিগ ওয়ান হারালেও দেশের হয়ে জিতেছেন উয়েফা নেশন্স লিগ। আর তাতেই ব্যালন ডি অরের তালিকায় ৯ নম্বরে থেকে শেষ করেছেন তিনি। দশে থেকে শেষ করেছেন ফ্রান্সের হয়ে ইউরো জয়ী গোলরক্ষক জিয়ানলুইগি ডনারুমা।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন