বিজ্ঞাপন

চতুর্থ ধাপে বিনা ভোটে ৪৮ চেয়ারম্যানসহ নির্বাচিত ২৯৫ জন

December 7, 2021 | 6:41 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪৮ চেয়ারম্যানসহ ২৯৫ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ৪৮ জন চেয়ারম্যানের বাইরেও ১৩৫ জন সাধারণ সদস্য ও ১১২ জন সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নারী সদস্য রয়েছেন। এই ধাপে ৮৪২টি ইউপিতে আগামী ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

ইসি সূত্র জানায়, চার ধাপের ইউপি নির্বাচনে এক হাজার ৩৫৯ জন প্রার্থী বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। প্রথম ধাপে ১৩৮ জন, দ্বিতীয় ধাপে ৩৫৭ জন, তৃতীয় ধাপে ৫৬৯ জন জন এবং চতুর্থ ধাপে ২৯৫ জন জনপ্রতিনিধি ভোট ছাড়াই নির্বাচিত হয়েছেন।

এর মধ্যে প্রথম ধাপের ১৩৮ জনের মধ্যে সাধারণ সদস্য পদে ৬৩ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৬ জন এবং চেয়ারম্যান পদে ৬৯ জন নির্বাচিত হন। দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে সাধারণ সদস্য পদে ২০৩ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৭৩ জন এবং চেয়ারম্যান পদে ৮১ জন নির্বাচিত হন। আর তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সাধারণ সদস্য পদে ৩৩৭ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৩২ জন এবং চেয়ারম্যান পদে ১০০ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। চার ধাপের নির্বাচনে কেবল চেয়ারম্যান পদেই ২৯৮ জন বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন। বিনা ভোটে নির্বাচিত সবাই ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রার্থী।

বিজ্ঞাপন

ইসি সূত্র জানায়, চতুর্থ ধাপে আগামী ২৬ ডিসেম্বর ৮৪২টি ইউপিতে ভোটগ্রহণ হবে। এসব ইউপিতে চূড়ান্তভাবে ৩৫ হাজার ৪৩৩ জন প্রার্থী নির্বাচনে তিনটি পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ হাজার ৮১৪ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩০ হাজার ১০৬ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১ হাজার ৫১৩ জন প্রার্থী চূড়ান্তভাবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

ইসি সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে ৩৬৯ ইউপি, দ্বিতীয় ধাপে ৮৪৮টি ইউপি এবং তৃতীয় ধাপের এক হাজার ইউপিসহ তিন ধাপে ২ হাজার ২১৭টি ইউপিকে ভোট গ্রহণ হয়েছে। আগামী ২৬ ডিসেম্বর ৮৪২টি এবং ৫ জানুয়ারি ৭০৭টি ইউপিতে নির্বাচন হবে। ফলে প্রথম পাঁচ ধাপে তিন হাজার ৭৬৬টি ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, দেশে চার হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় চার হাজার ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বাকিগুলোতে মামলা জটিলতার কারণে নির্বাচন আটকে রয়েছে। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে ইতিমধ্যে নয় বার ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ১৯৭৩ সালে প্রথম ইউপি নির্বাচন এবং সর্বশেষ ২০১৬ সালে নবম ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও ১৯৭৭, ১৯৮৩, ১৯৮৮, ১৯৯২, ১৯৯৭, ২০০৩, ২০১১ ইউপি নির্বাচন হয়েছে। চলতি ২০২১ সালে জুন জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দশম ইউপি নির্বাচন। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে নবম ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ওই বছরের ২২ মার্চ থেকে ৪ জুন পর্যন্ত ছয় ধাপে চার হাজার ২৭৫টি ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমানে দেশে দশম ইউপি নির্বাচন চলছে।

সারাবাংলা/জিএস/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন