বিজ্ঞাপন

বিবিসি’র বর্ষসেরা ১০০ নারীর অর্ধেকই আফগান

December 8, 2021 | 9:01 pm

রোকেয়া সরণি ডেস্ক

বিবিসি ২০২১ সালে বিশ্বের ১০০ জন অনুপ্রেরণাদায়ী-প্রভাবশালী নারীর তালিকা প্রকাশ করেছে। এই একশ নারীর পঞ্চাশ জনই আফগান। যারা চলতি বছরের আগস্টে তালেবান রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের পর থেকে কোণঠাসা অবস্থায় আছেন।

বিজ্ঞাপন

ন্যাটো সৈন্যরা আফগানিস্তান ছাড়ার পরপরই তালেবান জঙ্গিরা কাবুল দখল করে নেয় এবং ক্ষমতায় বসেই মেয়েদের বাইরে যাওয়া, কাজ করা এবং শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে নানান বিধিনিষেধ দেয় তারা। এর মধ্যেই অধিকারের দাবিতে রাস্তায় নেমে তালেবান সদস্যদের হামলার মুখে পড়েছেন অনেক নারী এবং অধিকারকর্মী। তাদের মধ্যে, ৬ নভেম্বর ফ্রোজান সাফি নামে একজন নারী অধিকারকর্মীর গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়। এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) বিবিসি ঘোষিত বছরের সেরা একশ নারীর তালিকায় এবার অর্ধেক আফগান নারী জায়গা করে নিয়েছেন।

বিবিসি বলছে আফগান নারীরা এ বছরের তালিকার অর্ধেক, যাদের মধ্যে কেউ কেউ নিজেদের নিরাপত্তার জন্য ছদ্মনামে এবং ছবি ছাড়াই উপস্থিত হয়েছেন। ২০২১ সালের আগস্টে তালেবানের পুনরুত্থান লক্ষাধিক আফগানদের জীবন বদলে দিয়েছে - মেয়েদের মাধ্যমিক শিক্ষা গ্রহণে নিষেধাজ্ঞা, মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয় ভেঙে দেওয়া এবং অনেক ক্ষেত্রে নারীদের কাজে ফিরে যেতে মানা করা হয়েছে বল। এই বছরের তালিকা তাদের সাহসিকতা এবং কৃতিত্বের স্বীকৃতি, কারণ তারা তাদের জীবন পুনরায় সেট করতে বাধ্য হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার আফগান নারীরা জায়গা পেয়েছেন এই তালিকায়। কেউ শিক্ষক, কেউ শিল্পী, কেউ বা মানবাধিকারকর্মী। আছেন উদ্যোক্তা, খেলোয়াড়, পরিবেশবিদ, নারীবাদী কর্মী, শান্তিকর্মী, সঙ্গীতশিল্পী, আইনজীবী, রাজনীতিবিদ, নৃত্যশিল্পী, পাইলট, রাজনীতিবিদ, চিকিৎসক, চলচ্চিত্র নির্মাতা, সঙ্গিত পরিচালক, মাউন্টেনিয়র, উচ্চপদস্থ নারী, সাংবাদিক, জ্যোতির্বিদ, পুলিশসহ সমাজের বিভিন্ন প্রান্তের নারীরা আছেন এই তালিকায়।

এবছর যেসব নারী 'রিসেট' বা পুনর্গঠনে ভূমিকা রাখছে তাদের নাম তালিকায় উঠে এসেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। তালিকার ভূমিকায় লেখা হয়েছে- যেসব নারীরা আমাদের সমাজ, সংস্কৃতি এবং বিশ্বকে নতুন করে উদ্ভাবনে ভূমিকা পালন করছে তাদেরকে তুলে ধরা হয়েছে এবার। এদের মধ্যে আছেন সর্বকনিষ্ঠ নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই, সামোয়ার প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী ফিয়ামে নাওমি মাতাফা, ভ্যাকসিন কনফিডেন্স প্রকল্পের প্রধান অধ্যাপক হেইডি জে লারসন, এবং প্রশংসিত লেখক চিমামান্ডা এনগোজি আদিচি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরএফ/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন