বিজ্ঞাপন

কুনমিংয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

December 16, 2021 | 7:19 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

যথাযোগ্য মর্যাদায় এবং উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মহান বিজয় দিবস ২০২১ উদযাপিত হলো চীনের কুনমিংয়ে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল কার্যালয়ে। এই আয়োজনেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিচালিত শপথবাক্য পাঠে অংশ নেন কুনমিং প্রবাসীরা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে শুরু হয় বিজয় দিবসের আনুষ্ঠানিকতা। পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন ছাড়াও ছিল আলোচনা অনুষ্ঠান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের ওপর তথ্যচিত্র প্রদর্শনী।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং একাত্তরের শহিদদের রুহের মাগফিরাত কামনা, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সুস্বাস্থ্য এবং দেশ ও জনগণের সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

বিজ্ঞাপন

কুনমিংয়ে বাংলদেশ কনস্যুলেট জেনারেল কার্যালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপ্রতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমের বাণী পাঠ করা হয়।

কুনমিংয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

বিজ্ঞাপন

আলোচনা অনুষ্ঠানে কুনমিংয়ে কনসাল জেনারেল এ এফ এম আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের প্রতিটি খাতে অভাবনীয় অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে। কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, তথ্যপ্রযুক্তি, শিল্প ব্যবসা-বাণিজ্যসহ আর্থসামাজিক উন্নয়নের প্রতিটি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বুকে রোল মডেল।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশে উন্নীত করেন। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দক্ষ নেতৃত্বে মাতৃভূমিকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে গেছেন। তিনি দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের অংশগ্রহণ ও সহযোগিতার আহ্বান জানান।

বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা থেকে পরিচালিত ও সম্প্রচারিত ‘মহাবিজয়ের মহানায়ক’ অনুষ্ঠানে যুক্ত হয় মিশন। সেখানে আয়োজিত আলোচনা সভায় উপস্থিত সবাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিচালিত শপথ অনুষ্ঠানের শপথ বাক্য পাঠ করেন।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন