বিজ্ঞাপন

চেলসিতে খেললেও লুকাকুর মন পড়ে আছে ইন্টারে

January 1, 2022 | 7:57 am

স্পোর্টস ডেস্ক

রেকর্ড পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে ইন্টার মিলান থেকে চেলসিতে আবারও নাম লিখিয়েছেন ছয় মাস হয়েছে। ২০২০ সালের গ্রীষ্মকালীন দলবদলের মৌসুমে চেলসিতে ফিরে বেলজিয়ান স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকু বলেছিলেন তিনি ঘরে ফিরেছেন। কিন্তু ছয় মাস যেতে না যেতেই সেই ঘরে নিজ হাতেই আগুন লাগালেন। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই তারকা বলেছেন তিনি চেলসিতে ফিরতে চাননি, খেলতে চেয়েছিলেন ইন্টারের হয়েই।

বিজ্ঞাপন

ইন্টার মিলানের হয়ে দুই বছরে ৯৫ ম্যাচ খেলে ৬৪ গোল করা লুকাকু ১১ বছর পর জিতিয়েছেন লিগ শিরোপা। আর পরেই ৯৮ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন চেলসির সঙ্গে। যেখানে ছয় মাস যেতে না যেতেই এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেছেন তিনি।

লুকাকু বলেন, ‘আমি সব সময় মিলান মিলান আর মিলানের কথাই চিন্তা করি। ইন্টারের সমর্থকরা পৃথিবীর সেরা সমর্থক। আমি এই শহরটাকে ভালোবাসি। আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সুন্দরতম সময় কেটেছে সেখানেই। ইন্টার মিলানকে আমি আমার হৃদয়ে ধারণ করি।’

অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে লুকাকুকে ধরে রাখতে পারেনি ইন্টার মিলান। সেটাই নিজের সাক্ষাৎকারে পরিষ্কার করেছেন লুকাকু। আর পরিষ্কার করে জানিয়েছেন তিনি চেলসিতে ফিরতে চাননি। ‘আমি ইন্টারে থাকতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমি যে চুক্তি চেয়েছিলাম তারা সেটা আমাকে দিতে পারেনি। আর একারণেই আমি ইন্টার ছেড়েছিলাম।’

বিজ্ঞাপন

‘ইন্টারের পক্ষ থেকে যদি আমাকে নতুন চুক্তির প্রস্তাব দেওয়া হত তাহলে আমি লন্ডনে বসে সাক্ষাৎকার দিতাম না। আমি মিলানেই থাকতাম এখন।’

কেবল এটাই নয়। ইন্টার ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর চেলসিতে ফেরাটাও প্রথম পছন্দ ছিল না বলেও জানিয়েছেন তিনি। রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা আর বায়ার্ন মিউনিখের পক্ষ থেকে কোনো প্রস্তাব না আসায় শেষ পর্যন্ত চেলসিতে নাম লেখান এই বেলজিয়ান।

লুকাকু বলেন, ‘বিশ্বে মাত্র তিনটা ক্লাব আছে বিশ্বসেরা। রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং বায়ার্ন মিউনিখ যেখানে আমার যাওয়ার ইচ্ছা ছিল। কিন্তু তাদের পক্ষ থেকে কোনো প্রস্তাব না আসায় আমার শেষ পছন্দ হিসেবে চেলসিতে নাম লেখায়।’

বিজ্ঞাপন

এর আগে ২০২০ সালে ম্যানচেস্টার সিটিতে যাওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন বলেও জানিয়েছেন এই স্ট্রাইকার।

সারাবাংলা/এসএস

Tags: , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন