বিজ্ঞাপন

ফুটবলাররা ভ্যাকসিন নেননি, বাংলাদেশ-ইন্দোনেশিয়া সিরিজ বাতিল

January 13, 2022 | 5:57 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

শনিবার (১৫ জানুয়ারি) ঢাকায় পৌঁছাবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের নতুন কোচ হাভিয়ের কাবরেরা। স্প্যানিশ এই কোচের বাংলাদেশের হয়ে প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট ছিল ইন্দোনেশিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজ। কিন্তু জাতীয় দলের ফুটবলাররা এখনো নেননি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন। আর একারণেই বাতিল হয়েছে সিরিজ। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জাতীয় দল ব্যাবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও বাফুফে সহসভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ।

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের ঘোষিত ২৮ সদস্যের দলের মধ্যে কেবল ১৫ জনেরই ভ্যাকসিনের দুই ডোজ সম্পন্ন হয়েছে। বাকি ১৩ জনের মধ্যে সাতজন এক ডোজ ভ্যাকসিন নিয়েছেন। কিন্তু এক ডোজও ভ্যাকসিন না নেওয়ার তালিকায় আছে ছয় ফুটবলারের নাম। ইন্দোনেশিয়া সরকার বাংলাদেশ দলের সব খেলোয়াড় ও কর্মকর্তার ডাবল ডোজ ভ্যাকসিন নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়েছে, যা পূরণে ব্যর্থ বাংলাদেশ। তাই তো বাতিল হলো এই সিরিজটি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে এক ভিডিও বার্তায় সিরিজ বাতিল হওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় দল ব্যাবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও বাফুফে সহসভাপতি কাজী নাবিল আহমেদ।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘১৫ জানুয়ারি আমাদের কোচ চলে আসছেন। আমরা ফুটবলারদের তালিকা তৈরি করে ফেলেছি। ইন্দোনেশিয়া থেকে জানানো হয়েছে আমাদের সকল ফুটবলার ও কোচিং প্যানেলের ভ্যাকসিন সম্পন্ন করতে হবে। বর্তমানে ভ্যাকসিন জটিলতার কারণে আমাদের এ সফরটি করা সম্ভব হচ্ছে না।’

অনুশীলন বাদে জাতীয় দলের প্রাথমিক সব প্রস্তুতি সেরে ফেলা হয়েছিল। কোচ চূড়ান্ত করা হয়। ২৮ ফুটবলারের প্রাথমিক স্কোয়াড চূড়ান্ত করা হয়। ইন্দোনেশিয়ার এক চিঠিতে প্রটোকল ইস্যুতে ভন্ডুল হলো জাতীয় দলের সব ব্যস্ততা।

বিজ্ঞাপন

শেষ মুহূর্তে এসে সফর বাতিলের কারণটি ব্যাখ্যা করেন জাতীয় দল ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান। ‘বর্তমানে আমাদের যে টিম লিস্ট আছে আমরা পর্যালোচনা করে দেখেছি, ১৫ জনের ডাবল ভ্যাকসিনেশন আছে। সাতজনের সিঙ্গেল ডোজ আছে। বাকি ৬ প্লেয়ারের কোনো ভ্যাকসিনেশন হয়নি।’—বলেন নাবিল।

বালিতে ২৪ ও ২৭ জানুয়ারি ফিফা উইন্ডোতে দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। তবে তা বাতিল হওয়ার পর এখন মার্চের ফিফা উইন্ডোটি কাজে লাগানোর পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। এ সময়ের মধ্যে ফুটবলারদের একটা তালিকা করে সবার ভ্যাকসিন সম্পন্ন করার কথা ভাবছে বাফুফে।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে জাতীয় দল ব্যবস্থাপনা কমিটির চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা চেষ্টা অব্যাহত রাখব। আশা করছি মার্চের ফিফা উইন্ডোতে একটি ফ্রেন্ডলি খেলার আয়োজন করতে পারব।’

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন