বিজ্ঞাপন

এক দিনে এবার সংক্রমণ ছাড়াল ৪৩শ, মৃত্যু আরও ৬ জনের

January 14, 2022 | 5:35 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। আগের দিন ৩ হাজার ৩৫৯ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ৩৭৮। অর্থাৎ, আগের দিনের তুলনাতেও হাজারের বেশি নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। গত ২৬ আগস্টের পর ১৪১ দিনের মধ্যে এই প্রথম এক দিনে সংক্রমণ ৪ হাজার ছাড়াল।

বিজ্ঞাপন

নতুন সংক্রমণের পাশাপাশি নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হারও বেড়েছে। আগের দিনের ১২ দশমিক ০৩ শতাংশের বিপরীতে গত ২৪ ঘণ্টায় এই হার বেড়ে হয়েছে ১৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ। এটিও গত ২৯ আগস্টের পর ১৩৮ দিনে সংক্রমণ শনাক্তের সর্বোচ্চ হার।

নতুন সংক্রমণ ও শনাক্তের হার বাড়লেও গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ নিয়ে মৃত্যু কমেছে। আগের দিন ১২ জন মারা গেলেও গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা ছিল ছয় জন।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবিরের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে গত ২৪ ঘণ্টার করোনা সংক্রমণের তথ্য জানানো হয়েছে।

নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে— গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ৮৫৩টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৫২টি, জিন এক্সপার্ট ল্যাব ৫৭টি ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ল্যাব ৬৪৪টি।

এসব ল্যাবে পরীক্ষার জন্য সারাদেশের বিভিন্ন বুথ থেকে ৩০ হাজার ৩৬৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এদিন মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৯ হাজার ৮৭১টি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ১ কোটি ১৮ লাখ ৮ হাজার ৯২টিতে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮১ লাখ ৪১ হাজার ২১৯টি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৩৬ লাখ ৬৬ হাজার ৮৭৩টি।

বিজ্ঞাপন

১৪১ দিন পর এক দিনে সংক্রমণ ৪ হাজার ছাড়িয়ে

দেশে আগের দিন ৩ হাজার ৩৫৯ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ হাজার ৩৭৮ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে মোট করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হলো ১৬ লাখ ৯ হাজার ৪২ জনের শরীরে।

বিজ্ঞাপন

পরিসংখ্যান বলছে, এর আগে গত ২৬ আগস্ট দেশে করোনাভাইরাসের নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল ৪ হাজার ৬৯৮ জনের শরীরে। এরপর থেকে গত ১৪১ দিনে এই প্রথম এক দিনে সংক্রমণ চার হাজার ছাড়িয়েছে।

২৯ আগস্টের পর শনাক্তের হার সর্বোচ্চ

আগের দিন নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার ছিল ১২ দশমিক ০৩ শতাংশ। গত কয়েকদিনের ধারাবাহিকতায় গত ২৪ ঘণ্টাতে এই হার আরও বেড়ে হয়েছে ১৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৯ আগস্ট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ছিল ১৪ দশমিক ১৪ শতাংশ। এরপর গত ১৩৮ দিনে গত ২৪ ঘণ্টাতেই প্রথম শনাক্তের হার ১৪ শতাংশ ছাড়াল।

সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা বেড়েছে

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। আগের দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৩০২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এ সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৫১ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ১৫ লাখ ৫২ হাজার ৩০৬ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় ৬ মৃত্যু

আগের দিন দেশে করোনা সংক্রমণ নিয়ে ১২ জন মারা গেলেও গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা কমে হয়েছে ছয় জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মোট মৃত্যু হলো ২৮ হাজার ১২৯ জনের। সংক্রমণ বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃতদের মধ্যে চার নারী, দুই জন পুরুষ। এর মধ্যে পাঁচ জন সরকারি ও এক জন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বয়স ও বিভাগভিত্তিক মৃত্যুর পরিসংখ্যান

গত ২৪ ঘণ্টায় যে ছয় জন করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন, তাদের একেক জন একেক বয়সী। এই সময়ে ২১ থেকে ৩০ বছর, ৩১ থেকে ৪০ বছর, ৪১ থেকে ৫০ বছর, ৬১ থেকে ৭০ বছর, ৭১ থেকে ৮০ বছর, ও ৮১ থেকে ৮৯ বছর বয়সী এক জন করে মারা গেছেন।

এদিকে, মৃত এই ছয় জনের মধ্যে তিন জন ঢাকা বিভাগের। বাকি তিন জনের মধ্যে দুই জন চট্টগ্রাম ও এক জন রাজশাহী বিভাগের। দেশের বাকি পাঁচ বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় কেউ করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা যাননি।

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন