বিজ্ঞাপন

স্বামীর অবৈধ আয়ের ভাগ নিয়ে দণ্ডিত স্ত্রী

January 23, 2022 | 12:57 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের এক সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের সাবেক অফিস সহকারীর স্ত্রীর সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড হয়েছে। প্রায় ৬৭ লাখ টাকা জ্ঞাত আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় তাকে এ সাজা ভোগ করতে হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার (২৩ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মুন্সী আব্দুল মজিদ এ রায় দেন। দণ্ডিত খুরশীদ জাহান চট্টগ্রামের সদর সাব রেজিস্ট্রার কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ্য অফিস সহকারী মৃত নুরুল আলমের স্ত্রী।

দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক সারাবাংলাকে জানিয়েছেন, দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ২৭(১) ধারায় খুরশীদ জাহানকে সাত বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অবৈধভাবে অর্জন করা ৬৬ লাখ ৮৬ হাজার ২২৭ টাকার সম্পদ রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

এর আগে ২০০৯ সালের ১০ মে মোট ৬৯ লাখ ৩৫ হাজার ১৯৩ টাকার জ্ঞাত আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে নুরুল আলম ও খুরশীদ জাহানের বিরুদ্ধে নগরীর ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের হয়।

তদন্তে পাওয়া তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে দুদক ৬৬ লাখ ৮৬ হাজার ২২৭ টাকার জ্ঞাত আয়বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। অভিযোগ প্রমাণে দুদকের পক্ষে মোট ১৮ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

মামলার বিচার কার্যক্রম চলাকালে নুরুল আলম মারা যান। পরে তাকে বিচার কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার সময় আসামি খুরশীদ জাহানকে আদালতে হাজির করা হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

দুদক পিপি মাহমুদুল হক বলেন, নুরুল আলম দুর্নীতির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জন করেন। পরে সেই সম্পদ তার গৃহিণী স্ত্রীর নামেও হস্তান্তর করেন। এ অভিযোগে উভয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে দুদক।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/এএম

বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন