বিজ্ঞাপন

বাগানবাড়িতে মৃতদেহ পুঁতে রেখেছেন সালমান!

January 23, 2022 | 8:51 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

আবার বিতর্কে জড়ালেন বলিউড ভাইজান সালমান খান। এবার এক প্রতিবেশীর সঙ্গে বিবাদের জেরে আইনি ঝামেলায় জড়িয়েছেন এই অভিনেতা। সালমানের পানভেলের ফার্মহাউজে ‘ফিল্মস্টারদের দেহ পোঁতা রয়েছে’ এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করেছে কেতন কক্কর নামের ওই প্রতিবেশী। জানা গেছে, সালমানের ফার্মহাউজের একদম কাছেরই একটি জমির মালিক সে। এদিকে, ওই প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে মিথ্যা রটানোর অভিযোগ এনে আগেই মানহানির মামলা করেছেন সালমান।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় গণমাধ্যম সুত্রে জানা গেছে, মামলার সাম্প্রতিক শুনানিতে সালমানের আইনজীবী প্রদীপ গান্ধী ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সালমানের ওই প্রতিবেশীর সাক্ষাৎকারের বেশ কিছু অংশ পড়ে শোনান। সালমানের আইনজীবী স্পষ্ট জানান, অভিনেতার ধর্মীয় পরিচয়কে অকারণে সাক্ষাৎকারে টেনে এনেছেন কেতন, এমনকি সালমানের বিরুদ্ধে শিশু পাচারের অভিযোগ পর্যন্ত এনেছেন, বলেছেন সালমানের পানভেল ফার্ম হাউজে নাকি ফিল্ম স্টারদের দেহ পুঁতে রাখা হয়।

বাগানবাড়িতে মৃতদেহ পুঁতে রেখেছেন সালমান!

বিজ্ঞাপন

এদিকে, আইনজীবীর মারফত সালমান জানান, ‘কোনোরকম তথ্য-প্রমাণ ছাড়া আমার নামে এই সব অবমাননাকর, মানহানিমূলক অভিযোগ আনা হয়েছে, যাতে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট হয়। সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের মামলাতে আমার ব্যক্তিগত ইমেজ নিয়ে কেন টানাটানি হবে।’

সালমানের এই মামলায় আরও দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, যারা ওই সাক্ষাৎকারের অংশ ছিলেন। সালমানের দায়ের করা অভিযোগের কপিতে ফেসবুক, ইউটিউব, গুগুলের মতো প্ল্যাটফর্মগুলিকেও শামিল করা হয়েছে, কারণ সালমান চান চিরতরে ডিলিট করে দেওয়া হোক ওই সাক্ষাৎকার।

বিজ্ঞাপন

তবে, সালমানের আইনজীবীর দাবি সালমানের ফার্ম হাউজের কাছে আরও একটি জমি কিনতে চেয়েছিল কেতন কক্কর, কিন্তু যা ভেস্তে যায় কোনও কারণে। এরপর থেকেই ওর ধারণা সালমান খানই কোন না কোনভাবে কেতনের জমি কেনা আঁটকে দিয়েছে।

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন