বিজ্ঞাপন

কাজীদার অবর্তমানেও জীবিত থাকবে ‘মাসুদ রানা’

January 25, 2022 | 11:33 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বাংলা সাহিত্যের ইতিহাসের সফলতম গোয়েন্দা সিরিজ ‘মাসুদ রানা’র স্রষ্টা কাজী আনোয়ার হোসেন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন সপ্তাহখানেক হলো। তার জীবনাবসানের সঙ্গে সঙ্গে জনপ্রিয় এই গোয়েন্দা সিরিজেরও অবসান ঘটবে কি না— এমন জল্পনা-কল্পনা ছিল পাঠকদের মধ্যে। তবে সেবা প্রকাশনী জানাচ্ছে, কাজীদার অবর্তমানেও ‘জীবিত থাকবে’ রোমাঞ্চ উপহার দেওয়া চরিত্র মাসুদ রানা। পাঠকরা আগের মতো নিয়মিতই পাবেন এই সিরিজের বই।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) রাতে সেবা প্রকাশনীর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে দেওয়া এক পোস্টে এ তথ্য জানিয়েছেন কাজী আনোয়ার হোসেনের পুত্রবধূ মাসুমা মায়মুর। তিনি সেবা প্রকাশনীর উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন।

মাসুমা মায়মুর পোস্টে বলছেন, কাজী আনোয়ার হোসেন জীবিত থাকাকালে যেভাবে তার নামের সঙ্গে সহ-লেখকদের নামে ‘মাসুদ রানা’ সিরিজের বই প্রকাশ হয়েছে, তার অবর্তমানেও একইভাবে প্রকাশ পাবে এই সিরিজের বই।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- মাসুদ রানা’র স্রষ্টা কাজীদা আর নেই

সেবা প্রকাশনীর কর্ণধার হিসাবে ষাটের দশকের মধ্যভাগে ‘মাসুদ রানা’ নামে একটি গুপ্তচর চরিত্রের জন্ম দেন কাজী আনোয়ার হোসেন। কালক্রমে বাংলা ভাষাভাষীদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় এই চরিত্রকে কেন্দ্র করে লেখা বইগুলো।

বিজ্ঞাপন

মাসুমা মায়মুর তার পোস্টে বলেন, কাজী আনোয়ার হোসেন ছিলেন বিচক্ষণ ও দূরদর্শী। তাই ২০১৬ সালে ‘ঘোস্ট রাইটার’দের সঙ্গে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেন, বইয়ে সহযোগী লেখকদের নামও যুক্ত করা হবে। তিনি (কাজী আনোয়ার হোসেন) আগে থেকেই ‘মাসুদ রানা’র গোস্ট রাইটারদের পরিচিত করে যেতে চেয়েছিলেন পাঠকের সঙ্গে। ‘মাসুদ রানা’র ভবিষ্যৎ নিয়ে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা থেকেই উনি কাজটি করেছিলেন। তিনি (কাজী আনোয়ার হোসেন) চেয়েছিলেন, তার অবর্তমানেও সিরিজটি যেন চলমান থাকে।

পোস্টে জানানো হয়, ‘মাসুদ রানা’ নামটি নিজের নামে পেটেন্ট করে রেখেছিলেন কাজী আনোয়ার হোসেন। প্রতিষ্ঠান হিসেবে যুক্ত করেছিলেন সেবা প্রকাশনীর নাম। তার সেই পরিকল্পনা ও সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই সেবা প্রকাশনী ‘মাসুদ রানা’ সিরিজটি চলমান রাখতে আন্তরিক।

বিজ্ঞাপন

মাসুমা মায়মুর বলেন, ‘মাসুদ রানা’র কাহিনী নির্বাচন ও সম্পাদনায় কাজ করবে অভিজ্ঞ ও দক্ষ একটি টিম। আমাদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টা থাকবে একটি ভালো মানের মাসুদ রানা পাঠকের হাতে তুলে দিতে।

লেখক হিসেবে কাজী আনোয়ার হোসেনের নাম ও সহযোগী লেখকের নাম আগের মতোই যুক্ত থাকবে বইয়ে। এ বিষয়ে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

শুরুতে কাজী আনোয়ার হোসেন নিজেই মাসুদ রানা সিরিজের বইগুলো লিখলেও একটা সময় গিয়ে ‘ঘোস্ট রাইটার’দের দিয়ে এই সিরিজ চালিয়ে নেন তিনি। এই সিরিজের অনেক বই-ই লিখেছেন প্রয়াত শেখ আব্দুল হাকিম। পরে ২০১৯ সালে সেবা প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী কাজী আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে শেখ আবদুল হাকিম  বাংলাদেশ কপিরাইট আইনের ৭১ ও ৮৯ ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসে দাখিল করেন।

দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর মাসুদ রানা সিরিজের ৩১০টি বইয়ের স্বত্ব পান তিনি। তবে কাজী আনোয়ার হোসেন আমৃত্যু বলে গেছেন, চুক্তি অনুযায়ী মাসুদ রানা সিরিজের স্বত্ব তারই।

আরও পড়ুন-

মাসুদ রানা-কুয়াশা সিরিজের ৩১০ বইয়ের স্বত্ব আবদুল হাকিমের

‘মাসুদ রানা’ ও ‘কুয়াশা’ সিরিজের কপিরাইট আদেশ হাইকোর্টে স্থগিত

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন