বিজ্ঞাপন

প্রসেনজিতের সঙ্গে ঝগড়া, ছবি থেকে বাদ শতাব্দী!

January 26, 2022 | 6:01 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

টলিউড সিনেমা জগতের একজন প্রথম সারির অভিনেত্রী শতাব্দী রায়। তার সময়ে তিনি দাপটে বাংলা ছবির জগতে রাজত্ব করে গেছেন। তাপস পালের সাথে তার জুটি সাধারণ দর্শকের কাছে খুবই গ্রহণযোগ্য হয়েছিল। এছাড়াও প্রসেঞ্জিত, চিরঞ্জিত, অভিষেকের সাথেও তিনি জুটি বেঁধে বহু অভিনয় করেছেন। তার সেই সময়কার অভিনয়ের দিনকাল নিয়ে এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন তিনি। প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রী হওয়ার পরও একাধিক ছবি থেকে তিনি বাদ পড়েছেন বলে মন্তব্য করলেন শতাব্দী। সম্প্রতি, এক সাক্ষাৎকারে টলিউডে স্বজনপোষণ নিয়ে বলার পাশাপাশি টলিপাড়ার তিন সুপারস্টার প্রসেনজিৎ-চিরঞ্জিৎ-তাপস পালের সঙ্গে তার সম্পর্কের রসায়ন নিয়েও মুখ খুলেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় ডিজিটালকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জোর গলায় শতাব্দী দাবি করেছেন কোনও এক নায়িকার সঙ্গে দারুণ সম্পর্ক নায়কের, স্রেফ এই কারণেই বহু ছবি থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। এবং তার বদলে সেই ছবিতে জায়গা করে নিয়েছে নায়কের সেই পছন্দের নায়িকা। অভিনেত্রীর কথায়, ‘এটা আগেও ছিল, এখনও আছে, আগামী দিনেও থাকবে’। তবে তার পাশাপাশি তিনি জোর গলায় জানিয়েছেন সেই মুহূর্তে হয়তো তার আক্ষেপ হয়েছে, অভিমান হয়েছে, কিন্তু সেটাকে পরবর্তী সময়ে কাটিয়ে উঠতে পেরেছেন। টলিপাড়ার একসময়ের এই প্রথম সারির নায়িকার কথায়, ‘আর দেখুন এটাই কিন্তু স্বাভাবিক। অঞ্জন চৌধুরী তার মেয়েকে নিতেন, সুখেন দাস তার মেয়েকে হিরোইন করেছিলেন। আজ আমি যদি শিল্পী হই, আমিও তো চাইব আমার ছেলে মেয়েরা প্রতিষ্ঠিত হোক।’

তার সময়কার প্রথম সারির টলিপাড়ার নায়কদের সঙ্গে ব্যক্তিগত জীবনে সম্পর্কের কথা উঠলে কোনও রাখঢাক না করেই শতাব্দী জানান, প্রসেনজিৎ, চিরঞ্জিৎ এবং তাপস পালের সঙ্গে তার সম্পর্ক মোটের উপর ভালোই ছিল। কখনও কখনও ঝগড়া হয়েছে। আবার হয়ত এমনও হয়েছে যে এমনিতে কেউ কারও সঙ্গে কথা বলছি না তবু একসঙ্গে শ্যুটিং করেছেন। হালকা চালে শতাব্দী বলেন, ‘প্রসেনজিতের সঙ্গেই এমনটা বেশি হতো। পরস্পরের কথা বলা বন্ধ অথচ একসঙ্গে ছবির শ্যুটিং করছি। ওদিকে চিরঞ্জিতদার সঙ্গে মাত্র একটি ছবি করাকালীন কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছিল। এর পরে কিছুদিন একসঙ্গে আর কাজ করিনি আমরা। ঐটুকুই। তবে হ্যাঁ, ওর সঙ্গে গল্প করে বেশ ভালো লাগে। আর তাপস পাল? নাহ, ওর সঙ্গে কখনওই কোনও সমস্যা হয়নি আমার।’

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, অভিনয়ের পাশাপাশি পেইন্টিং এবং কবিতা লেখাতেও সমান পারদর্শী শতাব্দী। তার বেশ কিছু কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থা থেকে। বর্তমানে তিনি তৃণমূল কংগ্রেস দলের একজন প্রতিনিধি এবং সাংসদ।

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন