বিজ্ঞাপন

রংপুরে জুয়েল হত্যা: এক জনের ফাঁসি, এক জনের যাবজ্জীবন

January 26, 2022 | 4:51 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

রংপুর: রংপুরের মেকুরা এলাকায় চার বছর আগের জুয়েল হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এক জনকে মৃত্যুদণ্ড এবং এক জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মামলার বাকি দুই আসামির মধ্যে এক জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। আরেকজনের বিচারকাজ চলছে শিশু আদালতে।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জাজ আদালতের বিচারক তারিক হোসেন এ রায় দেন। রায়ে মামলার বাদী ও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সন্তোষ প্রকাশ করলেও আসামিপক্ষ উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছে।

চার বছরের সাক্ষ্যপ্রমাণ শেষে চার আসামির মধ্যে মেহেদী হাসান সাগরকে মৃত্যুদণ্ড সাজা দিয়েছেন। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন মো. শাকিলকে। আর খালাস দেওয়া হয়েছে মো. খালেক নামে এক আসামিকে। চতুর্থ আসামি আনোয়ার হোসেনের বিচার শিশু আদালতে চলমান।

বিজ্ঞাপন

রায়ের কথা জানিয়ে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ২-এর পিপি জাহাঙ্গীর হোসেন তুহিন বলেন, এই মামলায় চার জন আসামি ছিলেন। তাদের মধ্যে আদালত এক জনকে মৃত্যুদণ্ড ও আরেকজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। অপরাধ প্রমাণ না পাওয়ায় এক জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। মামলার আরেক আসামি অপ্রাপ্তবয়স্ক। শিশু আদালতে তার বিচার চলছে।

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় সন্তোষ জানিয়ে নিহত জুয়েলের বড় ভাই জাকির হোসেন বলেন, আমরা রায়ে খুশি। এখন এই রায় দ্রুত কার্যকর হলে আমরা আরও খুশি হব। আর মামলার এক আসামির বিচার এখনো হয়নি। তারও যেন দ্রুত বিচার হয়, আমরা সেটিই চাই।

বিজ্ঞাপন

২০১৮ সালের মার্চে রংপুর নগরীর মেকুরা এলাকায় ভুট্টা খেত থেকে ট্রাক্টরচালক মো. জুয়েল রানার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মরদেহটি মাটি পুঁতে রাখা ছিল। এ ঘটনায় জুয়েলের বড় ভাই জাকির হোসেন কোতোয়ালি থানায় চার জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছিলেন।

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন