বিজ্ঞাপন

ট্রাক চাপায় ভ্যান চালক নিহত, চালক গ্রেফতার

January 27, 2022 | 3:09 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ডিমের ভ্যান বহনকারী চালক নুর আলমকে (৩৩) ট্রাকচাপা দিয়ে হত্যাকারী চালক জসীম উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। চালক জসীম উদ্দিন ট্রাকটি বেপরোয়া গতিতে চালাচ্ছিল বলে দাবি করে র‌্যাব।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে র‌্যাব’র মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাহিনীটির গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এসব তথ্য জানান।

এ বিষয়ে খন্দকার আল মঈন বলেন, গত ২৪ জানুয়ারি রাজধানীর বেইলি রোডে ভোর ৫ টার দিকে একটি সিমেন্ট কোম্পানির ট্রাক বেপরোয়া গতিতে চালানোর কারণে ডিম বহনকারী দুইটি ভ্যানকে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে প্রথম ভ্যান চালক তুহিন (৩০) রাস্তায় ছিটকে পড়ে গিয়ে আহত হয় এবং দ্বিতীয় ভ্যানের চালক নূর আলম (৩৩) ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে। ফলে ভ্যান দুটি দুমড়ে- মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থল হতে তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নূর আলমকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসা শেষে তুহিনকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। দুর্ঘটনা পরবর্তীতে ঘাতক ড্রাইভার ট্রাকটি রেখে পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের সদস্যরা সড়ক ও পরিবহন আইন, ২০১৮ এর ৯৮ ও ১০৫ ধারায় রমনা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-২০, তারিখ-২৪/০১/২০২২।

র‌্যাব জানায়, নিহত নূর আলম পেশায় একজন ভ্যান চালক। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলায়। ঢাকার তেজগাঁও রেলস্টেশনের পাশে সপরিবারে ছোট একটি রুম ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন তিনি। নূর আলম তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তিনি দৈনিক ভিত্তিতে তেজগাঁওয়ের একটি ডিমের আড়তের ভ্যান চালক হিসেবে কাজ করতেন। তিনি প্রতিদিন ভোরে আড়ত থেকে ডিম নিয়ে ভ্যানে করে দোকানে দোকানে ডিম সরবরাহ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। ঘটনার দিন রাজধানীর তেজগাঁও আড়ত থেকে ডিম নিয়ে জিনজিরায় বিভিন্ন দোকানে সরবরাহের জন্য যাচ্ছিল। নূর আলমের টানা-পোড়েনের সংসারে স্বামীকে হারিয়ে তার স্ত্রী একমাত্র শিশু কন্যাকে নিয়ে বর্তমানে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব সদর দফতর গোয়েন্দা শাখা, র‌্যাব-৩ এবং র‌্যাব-৭ এর যৌথ অভিযানে গত ২৬ জানুয়ারি রাত ৯ টার দিকে চট্টগ্রাম জেলার চাঁদগাও এলাকা থেকে ঘাতক ট্রাকের চালক মো. জসিম উদ্দিনকে (৩২) গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ওই ঘটনায় তার সংশ্লিষ্টতার তথ্য দেয়।

জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত জসিম জানায়, তিনি প্রায় ১০ বছর যাবৎ গাবতলীর ট্রাক স্ট্যান্ড হতে বিভিন্ন স্থানে ইট/বালু বহনকারী ট্রাক চালাতেন। তিনি চলতি মাসের প্রথম দিকে ওই সিমেন্ট কোম্পানিতে মাসিক আট হাজার টাকা বেতনে ট্রাক চালক হিসেবে যোগদান করে। ঘাতক ট্রাকটিকে এক মাস যাবৎ চালিয়ে আসছিলেন জসিম। গত ২৩ জানুয়ারি রাত ৯ টার দিকে যথারীতি সিমেন্ট ভর্তি ট্রাকটি নিয়ে মুন্সিগঞ্জ হতে রাজধানীর উত্তরার উদ্দেশে রওনা দেয়। আসামি ট্রাকটি হতে সিমেন্ট নামিয়ে গত ২৪ জানুয়ারি রাত ৪ টার দিকে রাজধানীর উত্তরা হতে মুন্সিগঞ্জে যাওয়ার উদ্দেশে রওনা হলে ভোর ৫ টার দিকে রাজধানীর বেইলি রোডে ওই ট্রাকটি বেপরোয়া গতিতে সামনে থাকা দুইটি ডিম বোঝাই ভ্যান গাড়িসহ চালকদের পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা দেয়।

বিজ্ঞাপন

জসিম আরও জানায়, ওই ঘটনার পর তিনি ট্রাকটি রেখে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে তার সিমেন্ট কোম্পানির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে। পরবর্তীতে তার প্রতিষ্ঠান হতে তাকে আত্মগোপনে থাকার পরামর্শ দিলে তিনি চট্টগ্রামে অবস্থানরত তার এক বন্ধুর বাসায় আত্মগোপন করেন।

সারাবাংলা/ইউজে/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন