বিজ্ঞাপন

মৃত্যুদণ্ড মাথায় নিয়ে পালিয়ে ছিলেন দেড় দশক, চালাতেন ট্রাক

February 4, 2022 | 5:05 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামে খুনের মামলায় মৃত্যুদণ্ড মাথায় নিয়ে দেড় দশক ধরে পালিয়ে থাকা এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। পালিয়ে থাকার সময়ে ওই আসামি ট্রাক চালাতেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে নগরীর বন্দর থানার নিমতলা বিশ্বরোড থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার জসিম উদ্দিনের (৫০) বাড়ি চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আমিরাবাদে।

র‌্যাব জানায়, জায়গা-জমি নিয়ে বিরোধে ২০০১ সালের ৯ নভেম্বর লোহাগাড়ার আমিরাবাদে মাহমুদুল হক নামে এক ব্যক্তি খুন হন। চার মাস পর ২০০২ সালে ৩০ মার্চ তার বড় ভাই জানে আলমকেও খুন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

মাহমুদুল হক হত্যা মামলায় ১৩ জন ও জানে আলম হত্যা মামলায় ২১ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। দুই মামলায় জসিম আসামির তালিকায় ছিলেন।

২০০৭ সালের ২৪ জুলাই জানে আলম হত্যা মামলায় আদালত জসিম উদ্দিনসহ ১২ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও আট জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেয়। পরবর্তীতে আপিল বিভাগ জসিমসহ ১০ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ বহাল রাখে।

বিজ্ঞাপন

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক নুরুল আবসার সারাবাংলাকে জানান, মাহমুদুল হককে খুনের পর জসিম লোহাগাড়া থেকে পালিয়ে চট্টগ্রাম নগরীতে চলে আসে। জানে আলম তার ভাই খুনের মামলা পরিচালনা করছিলেন। এ কারণে জসিমসহ আসামিরা প্রতিশোধ নিতে নগরী থেকে গিয়ে জানে আলমকে খুন করে।

চার মাসের ব্যবধানে দু’টি হত্যাকাণ্ডের পর জসিম পুরোপুরি আত্মগোপনে গিয়ে পরিবারের লোকদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়। পরে বোয়ালখালী উপজেলায় এক নারীকে বিয়ে করে সেখানে বসবাস শুরু করে।

বিজ্ঞাপন

র‌্যাব কর্মকর্তা নুরুল আবসার বলেন, ‘জসিম চট্টগ্রাম শহরে ট্রাক চালাত। ভুয়া পরিচয়পত্র দিয়ে ট্রাক চালকের লাইসেন্স সংগ্রহ করে।’

উল্লেখ্য, জানে আলম হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সৈয়দ আহম্মেদ নামে আরেক আসামিকে গত ২৭ জানুয়ারি নগরীর আকবর শাহ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন