বিজ্ঞাপন

শনাক্ত বেড়ে ২৩.৮৩ শতাংশ, এক তৃতীয়াংশ মৃত্যু ঢাকা বিভাগেই

February 5, 2022 | 4:52 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

ঢাকা: দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা ২৫ জন। গণিতের হিসাবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মোট মৃত্যুর এক তৃতীয়াংশ মানুষের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে।

বিজ্ঞাপন

একই সময়ে নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৮ হাজার ৩৫৯ জনের শরীরে। যা আগের দিন ছিল ৯ হাজার ৫২ জন। এই সময়ে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ। যা আগের দিন ছিল ২২ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

আগের দিন করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা গিয়েছিলেন ৩০ জন। ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের চেয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতরের উপপরিচালক এবং কোভিড ইউনিটের প্রধান ডা. মো. জাকির হোসেন খানের সই করা করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ৮৬৮টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৫৫টি, জিন এক্সপার্ট ল্যাব ৫৭টি ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট ল্যাব ৬৫৬টি।

এসব ল্যাবে পরীক্ষার জন্য দেশের বিভিন্ন বুথ থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ হাজার ৭৬৬টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। নতুন ও পুরনো নমুনা মিলে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৫ হাজার ৭৪টি। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হলো ১ কোটি ২৬ লাখ ৮৭ হাজার ৫৮৮টিতে। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৮৫ লাখ ৮৫ হাজার ৩২৭টি, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ৪১ লাখ ২ হাজার ২৬১টি।

বিজ্ঞাপন

শনাক্তের হার বেড়ে ২৩.৮৩ শতাংশ

আগের দিন দেশে ৯ হাজার ৫২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা কমে হয়েছে ৮ হাজার ৩৫৯। এ নিয়ে দেশে ১৮ লাখ ৫৩ হাজার ১৮৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হলো।

বিজ্ঞাপন

গত ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের তুলনায় নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণের হারও বেড়েঝে। আগের দিন এই হার ছিল ২২ দশমিক ৯৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় তা বেড়ে হয়েছে ২৩ দশমিক ৮৩ শতাংশ।

সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা বেড়েছে

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। আগের দিন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ৬ হাজার ২৮২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৭ হাজার ১৭ জন। সংক্রমণ বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৬ দশমিক ৪ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু বেড়েছে

আগের দিন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংক্রমণ নিয়ে মারা গেছেন ৩৬ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মোট মৃত্যু হলো ২৮ হাজার ৫৬০ জনের। সংক্রমণ বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত এই ৩৬ জনের মধ্যে ২১ জন পুরুষ, বাকি ১৫ জন নারী। তাদের মধ্যে ২৭ জন সরকারি ও ৯ জন বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

প্রায় তিনগুণ মৃত্যু ঢাকাতে, মৃত্যুশূন্য বরিশাল

গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৩ গুণ মানুষের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। ৩৬ জনের মধ্যে ২৫ জনই ঢাকা বিভাগের। এ ছাড়া দুইজন চট্টগ্রাম বিভাগের, একজন রাজশাহী বিভাগে, একজন খুলনা বিভাগে, সিলেটে একজন, রংপুরে দুইজন, ময়মনসিংহে দুইজন মারা গেছেন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে করোনায় কেউ মারা যাননি।

বয়সভিত্তিক মৃত্যুর পরিসংখ্যান

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণ নিয়ে মৃতদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১০ জনের বয়স ৮১ থেকে ৯০ বছর, দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আট জনের বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছর। এ ছাড়া ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী দুইজন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী দুইজন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ৬ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সী সাতজন মারা গেছেন।

সারাবাংলা/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন