বিজ্ঞাপন

ভ্যাকসিন গ্রহণের সনদ না পেলে ব্যবস্থা নেবে ডিএনসিসি

February 26, 2022 | 8:27 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, গণটিকা কার্যক্রমের আওতায় গত তিন দিনে ১ লাখ ২৫ হাজার মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। আজও কেন্দ্রগুলোতে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য উপচে পড়া ভিড়। আগামী ১ মার্চ থেকে দোকানপাটসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভ্যাকসিন গ্রহণের সনদ না পেলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে স্থাপিত ডিএনসিসির গণটিকা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন মেয়র।

আতিকুল ইসলাম বলেন, রাত যতই হোক উপস্থিত সবাইকেই ভ্যাকসিন দিতে হবে। দোকানের মালিক-কর্মচারীদের ভ্যাকসিন না নেওয়া থাকলে ১ মার্চ থেকে ডিএনসিসির ১০টি অঞ্চলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে দোকানপাট বন্ধসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, আমাদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভ্যাকসিন মজুত আছে। সবাইকে নির্ভয়ে ভ্যাকসিন নিয়ে সনদপত্র সংগ্রহ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

এ দিন মেয়র আতিকুল ইসলাম মোহাম্মদপুর হাউজিং সোসাইটির দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে আতিকুল ইসলাম বলেন, এই ঢাকা, সবার ঢাকা। সবাই মিলে এ ঢাকাকে একটি সুস্থ, সচল আধুনিক ঢাকা গড়ে তুলব। টিকা নেওয়া যেমন আমাদের দায়িত্ব তেমনি শহর পরিচ্ছন্ন রাখাও দায়িত্ব। জনগণের সহযোগিতা পেলে যে কোনো অসাধ্য সাধন করা সম্ভব। আরও দুই দিন চলবে ডিএনসিসির গণটিকা কার্যক্রম।

সেক্ষেত্রে আগামী ২৭ ও ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে ভেক্সিনেশন সেন্টার পরিচালনা করা হবে বলে জানান মেয়র।

বিজ্ঞাপন

এসময় কাউন্সিলরদের নির্দেশনা দিয়ে মেয়র বলেন, কাউন্সিলরগণ তাদের নিজ নিজ অঞ্চলের সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সঙ্গে সমন্বয় করে সুবিধাজনক স্থানে একটি টিকাদান বুথ স্থাপন করবেন। একই সাথে ব্যাপক প্রচারের মাধ্যমে মানুষকে ভ্যাকসিন নিতে উৎসাহিত করবেন।

সারাবাংলা/এসবি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন