বিজ্ঞাপন

‘২৩ সালের মধ্যে প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড পৌঁছে যাবে’

March 10, 2022 | 9:05 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ২০২৩ সালের মধ‌্যে দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব‌্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) মধুপুরের দুর্গম পাহাড়ে উচ্চগতির ব্রডব‌্যান্ড ইন্টারনেনেটের সংযোগের ভার্চুয়াল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার আম্বার আইটি‘র উদ‌্যোগে মধুপুরের গারো জনগোষ্ঠী অধ‌্যুষিত কয়েকটি গ্রামে এই সংযোগ দেওয়া হয়। প্রত‌্যন্ত পাহাড়ি গ্রামে ইন্টারনেট সংযোগ না থাকায় গ্রামবাসীর আকুতি বিষয়ে একটি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের পর বেসরকারি প্রতিষ্ঠানটি বাণিজ‌্যিকভাবে ব্রডব‌্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগের এই উদ‌্যোগ নেয়।

বিজ্ঞাপন

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী বলেছেন, ‘২০২৩ সালের মধ‌্যে দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ব্রডব‌্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হবে। ইতোমধ‌্যে ১৯০টি ইউনিয়ন ছাড়া দেশের প্রতিটি ইউনিয়নসহ দুর্গম পার্বত‌্য অঞ্চল, দ্বীপ, চর ও হাওরে উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগ নিশ্চিত করা হয়েছে।’

অনুষ্ঠানে দৈনিক প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান, সাংবাদিক মুনীর হাসান, প্রতিবেদক রাহিতুল ইসলাম এবং গ্রামবাসীর পক্ষে সুবীর নাগরিগ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তাদের প্রতিক্রিয়া ব‌্যক্ত করেন। এ সময় সবাই অসাধারণ উদ্যোগের প্রশংসা করেন।

বিজ্ঞাপন

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মধুপুরের দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চলসহ সকল দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলে মোবাইল নেটওয়ার্ক চালু করার আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, ‘মধুপুরের বনের মতো সারাদেশে অনেক প্রতিভা লুকিয়ে আছে। তাদের ডিজিটাল সংযোগ দিতে পারলে নতুন নতুন অনেক প্রতিভা বেরিয়ে আসবে।’ তিনি বলেন, ‘প্রযুক্তিতে শত শত বছর পিছিয়ে থাকা এই জাতি আগামী ১০ বছরে পৃথিবীর কোনো দেশ থেকে এক চুলও পিছিয়ে থাকবে না। আমরা ইতোমধ‌্যে ফাইভ-জি উদ্বোধন করেছি।’

কৃষি, মৎস‌্য চাষ ও শিল্প বাণিজ‌্যসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে ফাইভ-জি হবে এগিয়ে যাওয়ার বড় হাতিয়ার বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন। মন্ত্রী দেশের প্রত‌্যন্ত অঞ্চলের প্রতিভাকে বিকশিত করতে উচ্চগতির ডিজিটাল সংযোগ সংযোগসহ তাদেরকে সম্ভাব‌্য সব ধরণের সহযোগিতা প্রদানের প্রতিশ্রুতি ব‌্যক্ত করেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/ইএইচটি/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন