বিজ্ঞাপন

মতিঝিলে আ. লীগ নেতা ও কলেজ ছাত্রীকে হত্যার ফুটেজ পুলিশের হাতে

March 25, 2022 | 8:56 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপু ও রিকশা আরোহী কলেজ ছাত্রীকে হত্যার ভিডিও ফুটেজ পুলিশের হাতে এসেছে বলে জানিয়েছেন মতিঝিল বিভাগের ডিসি আব্দুল আহাদ।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাতে ডিসি আব্দুল আহাদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, কিছুক্ষণ আগের ঘটনা। কী কারণে তিনি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন, তা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব না। ইতোমধ্যেই সিসিটিভির ফুটেজ আমরা পেয়েছি।

ডিসি আব্দুল আহাদ জানান, মতিঝিল থানার সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম টিপু মাইক্রোবাসে বাসার দিকে যাচ্ছিলেন। খিলগাও রেলক্রসিংয়ের ৫০ গজ আগে উত্তর শাহজাহানপুরে পৌঁছা মাত্র রাস্তার অন্যপাশে মোটরসাইকেলে আসা এক যুবক রাস্তার পার হয়ে এসে এলোপাতাড়ি গুলি করে পালিয়ে যায়। ওই যুবকটি হেলমেট পরিহিত ছিল। মাইক্রোবাসের সামনের সামনের ছিটে বসা ছিল টিপু। এ সময় রিকশা আরোহী বদরুন্নেসা কলেজের এক ছাত্রীও গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন। টিপুর গাড়িচালকও গুলিবিদ্ধ হন।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) রাত ১০টার দিকে এ হামলার শিকার হন জাহিদুল ইসলাম টিপু। গুলিবিদ্ধ তিনজনকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সোয়া ১১টার দিকে দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

গুলিবিদ্ধ মনির হোসেন মুন্না হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, তার মালিক জাহিদুল ইসলাম টিপুকে নিয়ে এজিবি কলোনি থেকে গাড়িযোগে শাজাহানপুরের বর্তমান বাসায় যাচ্ছিলেন। পথে শাজাহানপুর আমতলা মসজিদ এলাকায় যানজটে আটকে ছিলেন। এসময় হঠাৎ মুখোশ পরা এক ব্যক্তি তাদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি করলে তারা গুলিবিদ্ধ হন।

বিজ্ঞাপন

এদিকে নিহত সামিয়া প্রীতির বান্ধবী সুমাইয়া জানান, ঘটনার সময় তারা শাজাহানপুর আমতলা এলাকায় রিকশায় ছিলেন। তখন হঠাৎ কোথা থেকে গুলি এসে প্রীতির গায়ে লাগে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক প্রীতিকে মৃত ঘোষণা করেন।

সারাবাংলা/এসএসআর/এএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন