বিজ্ঞাপন

কেরানীগঞ্জে হাইটেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

April 12, 2022 | 5:58 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ঢাকার কেরানীগঞ্জে ‘আইটি বা হাইটেক পার্কে’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এসময় ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) কেরানীগঞ্জের ঝিলমিলে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই আইটি পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আমরা অত্যন্ত আনন্দিত এ কারণে যে কেরানীগঞ্জে আইটি/হাইটেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হচ্ছে। এর মাধ্যমে আইটি ইন্ডাস্ট্রিতেও এখন কেরানীগঞ্জবাসীর অবদান রাখার ক্ষেত্র প্রস্তুত হলো। কেরানীগঞ্জে হাইটেক পার্ক স্থাপনের কাজ শেষ হলে এই এলাকার তরুণ প্রজন্ম গতানুগতিক ব্যবসা-বাণিজ্যর বদলে অনলাইনে কাজ করে ডলার উপার্জন করতে পারবে, যা দেশের আর্থসামাজিক পরিবেশের ব্যাপক পরিবর্তন আনবে।

বিজ্ঞাপন

কেরানীগঞ্জে হাইটেক পার্কের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে ভারতের অসামান্য অবদান কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল দেশের প্রতিটি মানুষ ভোগ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সততা, সাহসিকতা ও দূরদর্শিতা দিয়ে একটি স্বল্পোন্নত দরিদ্র দেশকে প্রযুক্তিনির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ পরিণত করেছেন। তিনি বাংলাদেশের প্রতিটি ঘরকে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করেছেন এবং ১৩ কোটি মানুষকে ইন্টারনেটে সংযুক্ত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্বামী দুই দেশের মধ্যেকার নিবিড় সম্পর্ক আরও দৃঢ় করতে এবং আইসিটি সেক্টরসহ অন্যান্য খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে অংশীদারিত্ব বাড়ানোর বিষয়েও গুরুত্ব দিয়ে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে দুই দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ করে আইসিটি সেক্টরে ভারতের বিনিয়োগ বেড়েছে। বর্তমানে দেশের ১২টি জেলায় হাইটেক পার্ক স্থাপন প্রকল্পে ভারত সরকারর ঋণ দিচ্ছে। অদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশে সহযোগিতার ক্ষেত্র আরও প্রসারিত করবে ভারত।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে কেরানীগঞ্জের ৩ দশমিক ২৭২ একর জমিতে এই হাইটেক পার্ক স্থাপনের কাজ শেষ হলে এখানে প্রায় ১৫ হাজার জনের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে। অনু্ষ্ঠানে আইসিটি বিভাগ ও বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা এবং ভারতীয় হাইকমিশনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সারাবাংলা/ইএইচটি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন