বিজ্ঞাপন

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে এক পা লিভারপুলের

April 28, 2022 | 3:03 am

স্পোর্টস ডেস্ক

অ্যানফিল্ডে দুই মিনিটের ঝড়ে ভিয়ারিয়ালের জালে দুইবার বল পাঠাল লিভারপুল। ম্যাচের ৫৩তম মিনিটে জর্ডান হ্যান্ডারসনের দুর্দান্ত এক গোল যদিও শেষ পর্যন্ত তা ভিয়ারিয়াল ডিফেন্ডার এস্তুপিনানের আত্মঘাতী গোল হিসেবে গণনা করা হয়েছে। এর দুই মিনিট পরে মোহাম্মদ সালাহর থ্রু বল ডি-বক্সে পেয়ে রুলিকে পরাস্ত করে অল রেডদের ২-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে নেন সাদিও মানে।

বিজ্ঞাপন

ম্যাচের প্রথমার্ধে বেশ প্রতিরোধ গড়েছিল উনাই এমরের ভিয়ারিয়াল। তবে দ্বিতীয়ার্ধের ইয়্যুর্গেন ক্লপের প্রেসিং ফুটবলের সামনে আর রক্ষণভাগ ঠিক রাখতে পারেনি ভিয়ারিয়াল। এতেই ২-০ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইয়োলো সাবমেরিন খ্যাত ভিয়ারিয়াল।

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে এক পা লিভারপুলের

বিজ্ঞাপন

গোটা ম্যাচের ৭৩ শতাংশ বল দখলে রাখে লিভারপুল। ভিয়ারিয়ালের গোল বরাবর ১৯টি শট করে তারা যার মধ্যে পাঁচটিই ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে ভিয়ারিয়াল মাত্র ২৭ শতাংশ বল দখলে রেখে কেবল একটি শটই নিতে পারে যেটিও ছিল লক্ষ্যভ্রষ্ট। আর গোটা ম্যাচ জুড়ে লিভারপুলের আক্রমণ ঠেকিয়ে গেছে ইয়োলো সাবমেরিনরা। তাই তো আক্রমণে ওঠার সুযোগই পায়নি স্প্যানিশ এই টিম।

ঘরের মাঠে শুরু থেকেই ভিয়ারিয়ালের ওপর চড়াও হয় সাদিও মানে-মোহাম্মদ সালাহরা। ম্যাচের ১৩ মিনিটে মোহাম্মদ সালাহর দুর্দান্ত এক ক্রসে পা ছোঁয়ালেও লক্ষ্যে রাখতে পারেননি মানে। এক মিনিট পরে লুইস দিয়াজ বাঁ দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে জোরালো শট নেন কিন্তু তার শট ফিরিয়ে ফেন রুলি। ফিরতি বল পেয়ে শট নিলে তা রুখে গ্লাভসবন্দি করেন এই আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক।

বিজ্ঞাপন

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে এক পা লিভারপুলের

২২তম মিনিটে থিয়াগোর কাছ থেকে বল পেয়ে দারুণ এক শট নেন অলরেড অধিনায়ক জর্ডান হ্যান্ডারসন। তবে তার শট গোলপোস্টে লেগে প্রতিহত হওয়ার পর গোলকিক হয়। আর প্রথমার্ধের শেষ দিকে এসে দূরপাল্লার দুর্দান্ত এক শট নেন থিয়াগো। এবারেও বাধা হয়ে দাঁড়ায় গোলপোস্ট। আর এতেই প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যতে।

বিজ্ঞাপন

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরেই মাত্র পাঁচ মিনিটের মাথায় বল জালে জড়ান ফ্যাবিনহো তবে অফসাইডের কারণে বাতিল হয় তার গোল। কিন্তু গোলের জন্য আর বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি স্বাগতিকদের। ম্যাচের ৫৩তম মিনিটে হ্যান্ডারসনের দুর্দান্ত এক ক্রস ভিয়ারিয়াল ডিফেন্ডার পারভিস এস্তুপিনানের শরীরে লেগে দিক পরিবর্তন করে জালে জড়ালে ১-০ গোলের ব্যবধানে লিড পায় লিভারপুল।

ভিয়ারিয়ালকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে এক পা লিভারপুলের

বিজ্ঞাপন

গোলের রেশ কাটতে না কাটতেই ব্যবধান দ্বিগুন করেন সাদিও মানে। মোহাম্মদ সালাহর সঙ্গে দুর্দান্ত যুগলবন্দীতে দারুণ এক গোল করে দলকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে নেন মানে। ৬৪তম মিনিটে তৃতীয় গোলের দেখাও পেয়েছিল লিভারপুল তবে ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ডের কাছ থেকে পাওয়া দুর্দান্ত এক ক্রস থেকে গোল করেছিলেন অ্যান্ড্রিউ রবার্টসন তবে গোল করার আগে অফসাইড পজিশনে ছিলেন তিনি। তাই তো বাতিল হয়ে যায় গোলটি।

এরপর একের পর এক আক্রমণ করেও আর গোলের দেখা পায়নি লিভারপুল। এতেই শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অল রেডরা। দুই দলের ফিরতি লেগের খেলা আগামী ৩ মে মঙ্গলবার ভিয়ারিয়ালের ঘরের মাঠ এস্তাদিও দে লা সিরামিকাতে অনুষ্ঠিত হবে।

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন