বিজ্ঞাপন

টাকা নেই, বিজেপি নেতার কাছে ‘কাজ ভিক্ষা’ চাইলেন অভিনেতা রুদ্রনীল

May 7, 2022 | 9:53 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

গত বছর অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন। আর এই নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। এই নির্বাচনে সবার নজর ছিল টলিউডের তারকাদের দিকে। যারা ভোটের আগে কেউ যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে, কেউ বিজেপিতে। যার ফলে লড়াইটা ছিল তারকা বনাম তারকা। ভোট শেষে দেখা গেল, জয়ের তালিকায় তৃনমূল তারকা প্রার্থীর সংখ্যাই বেশি। পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ পেয়েছেন বিজেপি একাধিক সেলিব্রিটি ক্যান্ডিডেট। তারমধ্যে অন্যতম টলিউড অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। যিনি নির্বাচনের আগে তৃনমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। বিজেপির হয়ে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন পশ্চিমবাংলার ভবানীপুর আসনে। কিন্তু প্রচুর ভোটে হেরেছেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের কাছে। এরপর থেকেই একের পর এক আলোচনায় এই অভিনেতা।

বিজ্ঞাপন

এবার কাজ ভিক্ষা চাইলেন অভিনেতা রুদ্রনীল। আর সেটা ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছেই। জানা গেছে, বিজেপির শিবিরে নাম লেখানোর জেরেই নাকি টলিউডে কোণঠাসা অভিনেতা। তাই সরাসরি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছেই এবার ‘কাজ চেয়ে’ বসলেন রুদ্রনীল। আর এই ঘটনায় হতবাক সকলেই, এমনকি বিজেপির অন্দরেও বিষয়টি নিয়ে হাসাহাসি চলছে বলেই ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর। শোনা যাচ্ছে, বিজেপির নেতারাই নাকি প্রশ্ন তুলছেন, এইভাবে কেউ কাজ ‘ভিক্ষা’ চায়?

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সুত্রে জানা গিয়েছে শুক্রবার নিউটাউনের এক বেসরকারি হোটেলে রাজ্য বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেখানেই হাজির ছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। দলীয় সূত্রে খবর রুদ্রনীল ঘোষ সরাসরি অমিত শাহের কাছে দরবার করে বলেন, ‘আমাদের রোজগার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। টাকা নেই। রোজগারের ব্যবস্থা করুন। কেন্দ্রীয় সরকারের ফিল্ম ও বিভিন্ন কমিটির সঙ্গে আমাদের যুক্ত করুন।’ এ কথা শুনে তাজ্জব সকলেই। বিজেপি নেতারাই নয়, টলিউডের শিল্পী মহলেও এই নিয়ে নিন্দার ঝড়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রাজ্য নেতা বলেছেন, ‘আগেও টলিউডে অনেকে বিজেপিতে ছিলেন। কিন্তু কেউ কখনও এভাবে দলীয় বৈঠকে সরকারের চাকরির জন্য ভিক্ষা করেননি’।

বিজ্ঞাপন

এর আগেও রুদ্রনীল টলিউডে ‘একঘরে’ হয়ে থাকার অভিযোগ তুলেছিলেন, এমনকী তাকে কাজ দিচ্ছেন না প্রযোজকরা, এমন অভিযোগও এনেছিলেন। তবে বারবার সেই দাবি নস্যাৎ করেছে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃনমূল। বিজেপি-র সঙ্গে যুক্ত বহু কলাকুশলীই টলিউডে কাজ করছেন, সেখানে রাজনীতির রং বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি কোনদিন, এমনটাই দাবি তৃণমূলের।

প্রসঙ্গত, রুদ্রনীলকে শেষ দেখা গিয়েছে ‘স্বস্তিক সংকেত’ ছবিতে। এই ফিল্মে তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহানের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছিলেন রুদ্রনীল।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন