বিজ্ঞাপন

আইপির মেয়াদ শেষ, হিলি বন্দরে আসছে না ভারতীয় পেঁয়াজ

May 9, 2022 | 10:21 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

দিনাজপুর: আমদানির অনুমতির (আইপি) মেয়াদ শেষ হওয়ায় দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বন্ধ রয়েছে ভারত থেকে পেঁয়াজের আমদানি।

বিজ্ঞাপন

আরও কিছুদিন আমদানি বন্ধ থাকলে পেঁয়াজের দাম বাড়ার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন পাইকারি ব্যবসায়ীরা। তবে আড়তগুলোতে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় দাম বাড়ার আশঙ্কা নেই বলছেন আমদানিকারকরা।

জানা যায়, পেঁয়াজ আমদানির আইপি শেষ হয়েছে গত ৫ মে। এরপর নতুন করে আইপি অনুমোদন না দেওয়ায় চার দিন ধরে এই বন্দর দিয়ে আর পেঁয়াজ আমদানি হয়নি।

বিজ্ঞাপন

আমদানিকারকরা জানান, গত ২৯ মার্চ পেঁয়াজ আমদানির আইপি অনুমোদন শেষ হয়ে যায়। তবে রমজান মাস সামনে থাকায় বাজার স্বাভাবিক রাখতে সরকার ওই দিনই আবার আমদানির অনুমতি বাড়িয়ে দেয় ৫ মে পর্যন্ত।

হিলি কাস্টমসের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৯ মার্চ থেকে ৫ মে পর্যন্ত ভারত থেকে ২০১টি ট্রাকে ৫ হাজার ৫৬২ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে। তবে এরপর আইপির মেয়াদ শেষ হলে আর নতুন করে মেয়াদ বাড়ানো হয়নি।

বিজ্ঞাপন

পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, এখন পর্যন্ত তাদের কাছে পেঁয়াজ আছে। তবে আমদানি বন্ধ থাকলে ইদুল আজহার আগে পেঁয়াজের সংকট হতে পারে। সেক্ষেত্রে পেঁয়াজের দাম বাড়তে পারে।

তবে আমদানিকারকরা সেই আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন। হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি মো. হারুন উর রশিদ বলেন, আড়তগুলোতে পেঁয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। এখন পর্যন্ত যে পরিমাণ পেঁয়াজ আছে, তাতে ইদ পর্যন্ত (ইদুল আজহা) তেমন সমস্যা হওয়ার কথা না। আর এর মধ্যে আইপি পেয়ে গেলে তো কোনো সমস্যাই নেই। তাই পেঁয়াজের দাম বাড়ানোর কোনো আশঙ্কা নেই।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন