বিজ্ঞাপন

ঘূর্ণিঝড় আসানি: মোংলায় প্রস্তত ১০৩টি আশ্রয়কেন্দ্র 

May 10, 2022 | 10:19 pm

লোকাল করেসপন্ডেন্ট

মোংলা (বাগেরহাট): ঘূর্ণিঝড় আসানি’র প্রভাব মোকাবিলায় ১০৩টি সাইক্লোন শেল্টার বা আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। যদিও বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দরগুলো থেকে হাজার কিলোমিটার দূরে থাকতেই প্রবল ঘূর্ণিঝড় আসানি তার শক্তি হারাতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (১০ মে) সকালে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটির প্রভাবে বৃষ্টি হলেও দুপুরের পর থেকে মোংলা ও এর আশপাশে উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টিপাত হচ্ছে। তবে এলাকায় গোমট আবহাওয়া বিরাজ করায় মানুষের স্বাভাবিক চলাচল কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। একইসঙ্গে বন্দরে অবস্থান করা বাণিজ্যিক জাহাজের পণ্য খালাসেও সমস্যা হচ্ছে।

স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় আসনি’তে পরিণত হলে মোংলা উপকূলীয় এলাকার মানুষের জানমাল রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে জরুরি সভা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এজন্য একটি কনট্রোল রুমও খোলার হয়েছে। একইসঙ্গে ৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ১০৩টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়,বন্দরে ৬টি বাণিজ্যিক জাহাজ পণ্য খালাসের জন্য অবস্থান করছিল। এরমধ্য থেকে ২টি জাহাজ বন্দর ত্যাগ করবে। আর আরও তিনটি জাহাজ আজ মঙ্গলবার বন্দরে প্রবেশ করবে।

এর আগে, আবহাওয়া অধিদফতর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ছয়টা থেকে পরবর্তী ১২ ঘণ্টার মধ্যে এটি প্রবল ঘূর্ণিঝড় থেকে শুধু ঘূণিঝড়ে পরিণত হবে। যদিও ভারতের আলিপুর আবহাওয়া অফিসের দাবি, ঘূর্ণিঝড় আসানি শক্তি হারিয়ে ইতোমধ্যেই গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন