বিজ্ঞাপন

সর্বনিম্ন হজ প্যাকেজ ৪ লাখ ৮৩ হাজার টাকা

May 12, 2022 | 1:21 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের সর্বনিম্ন প্যাকেজ ৪ লাখ ৬৩ হাজার ৭৪৪ টাকা নির্ধারণ করেছে এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব)। এর সঙ্গে কোরবানির জন্য আরও ১৯ হাজার ৬৮৩ টাকা দিতে হবে। ফলে এবারে হজযাত্রীদের সর্বনিম্ন প্যাকেজের মূল্য দাঁড়াচ্ছে ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৪২৭ টাকা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১২ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে হজের এই প্যাকেজ ঘোষণা করে হাব। এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, এবার বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের সর্বনিম্ন প্যাকেজ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে চার লাখ ৬৩ হাজার ৭৪৪ টাকা। এই প্যাকেজ এর সঙ্গে কোরবানির জন্য অতিরিক্ত আরও ১৯ হাজার ৬৮৩ টাকা দিতে হবে। সেখানে আরও বলা হয়, চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ৫৭ হাজার ৫৮৫ মুসল্লি হজ পালন করবেন। এর মধ্যে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৩ হাজার ৫৮৫ জন এবং ৪ হাজার যাবেন সরকারি ব্যবস্থাপনায়।

বিজ্ঞাপন

বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ এর অর্থ আগামী ১৮ মে’র মধ্যে পরিশোধ করতে হবে বলে ওই সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আগামী ৮ জুলাই চাঁদ দেখা সাপেক্ষে সৌদি আরবে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের জন্য ‘সাধারণ প্যাকেজ’ নামে একটি প্যাকেজ করা হয়েছে। এছাড়াও প্রত্যেক এজেন্সি নিজ নিজ স্পেশাল প্যাকেজ করতে পারবেন। তবে কোনো প্যাকেজই হাব ঘোষিত সর্বনিম্ন প্যাকেজ মূল্যের চেয়ে কম হবে না।

বিজ্ঞাপন

হাব সভাপতি বলেন, সাধারণ প্যাকেজের হজযাত্রীদের পবিত্র হারাম শরীফের বাইরের চত্বরের সীমানার এক হাজার থেকে এক হাজার ৫০০ মিটার দূরত্বে আবাসনের ব্যবস্থা করা হবে। প্যাকেজ ঘোষণার পর সৌদি সরকার অতিরিক্ত কোনো ফি আরোপ করলে তা প্যাকেজ মূল্য হিসেবে গণ্য হবে এবং তা হজযাত্রীকে পরিশোধ করতে হবে।

শাহাদাত হোসাইন বলেন, কোরবানির খরচ বাবদ প্রত্যেক হজযাত্রীকে ৪১০ সৌদি রিয়াল সমান পরিমাণ ১৯ হাজার ৬৮৩ টাকা আলাদাভাবে নিজ দায়িত্বে সঙ্গে নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ১৯৫৭ সালের ৩০ শে জুনের আগে যাদের জন্ম তারা এ বছর হজে যেতে পারবেন না। অর্থাৎ ৬৫ বছরের উর্ধ্বে কোন হজ্বযাত্রী এবার হজ করতে পারবেন না। পাশাপাশি যাদের পাসপোর্টের মেয়াদ ২০২৩ সালের ৪ জানুয়ারির আগে শেষ হয়ে যাবে তারও এবার হজে যেতে পারবেন না।

এর আগে, গতকাল বুধবার (১১ মে) সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ গমনেচ্ছুদের জন্য প্যাকেজ ঘোষণা করে সরকার। এবার প্যাকেজ-১-এ ব্যয় ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৪০ টাকা, প্যাকেজ-২-এ এই খরচ চার লাখ ৬২ হাজার ২১৫ টাকা। দুই প্যাকেজেই গত বছরের তুলনায় হজযাত্রীদের খরচ বাড়ছে ১ লাখ টাকার বেশি। সচিবালয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল ইসলাম এই হজ প্যাকেজ ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারির কারণে সৌদি সরকারের বিধিনিষেধের মুখে গত দুই বছর বাংলাদেশি হজযাত্রীরা হজ পালন করতে পারেননি। সবশেষ ২০১৯ সালে বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন হজযাত্রীরা। ২০২০ সালে প্যাকেজ ঘোষণা হলেও বাংলাদেশ থেকে কেউ হজে যেতে পারেননি। তখন হজ পালনে প্যাকেজ-১-এ ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা, প্যাকেজ-২-এ ৩ লাখ ৬০ হাজার টাকা এবং প্যাকেজ-৩-এ খরচ ধরা হয়েছিলো ৩ লাখ ১৫ হাজার টাকা। তখন হজ প্যাকেজগুলো বেসরকারি হজযাত্রীদের জন্যও প্রযোজ্য ছিল।

সারাবাংলা/জিএস/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন