বিজ্ঞাপন

চীনকে রুখতে আসিয়ানভুক্ত দেশে ১৫০ মিলিয়ন ব্যয় করবে যুক্তরাষ্ট্র

May 13, 2022 | 2:06 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার জোট আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোর অবকাঠামো, নিরাপত্তা ও মহামারির প্রস্তুতির জন্য ১৫০ মিলিয়ন ডলার ব্যয় করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। চীনের ক্রমবর্ধমান প্রভাব মোকাবিলায় এই ব্যয় সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। খবর রয়টার্স।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (১৩ মে) হোয়াইট হাউজে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ১০টি দেশ নিয়ে গঠিত অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান নেশনস (আসিয়ান) নেতাদের নিয়ে আয়োজিত নৈশভোজে এই প্রতিশ্রুতি দেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। এর আগে, গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ মে) জোট নেতাদের সঙ্গে দুই দিনের এই শীর্ষ সম্মেলন শুরু হয়।

মার্কিন প্রশাসনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, ‘দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় আমাদের কার্যক্রম বাড়াতে হবে। আমরা তাদের চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে যেকোনো একটি দেশকে বেছে নিতে বলছি না। আমারা এটা পরিষ্কার করতে চাই, যুক্তরাষ্ট্র তাদের সঙ্গে আরও শক্তিশালী সম্পর্ক চায়।’

বিজ্ঞাপন

সম্মেলনে অংশ নেওয়া আসিয়ানভুক্ত দেশগুলো হলো— ব্রুনাই, ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, লাওস, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া এবং ফিলিপাইন। তবে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে জোটের আরেক সদস্য রাষ্ট্র মিয়ানমার এই বৈঠক অংশ নিতে পারেনি।

এর আগে, গত বছর নভেম্বর করোনা প্রতিরোধে ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে তিন বছরে আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোকে ১ দশমিক ৫ মিলিয়ন ডলার সহায়তা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল চীন। তারই বিকল্প হিসেবে এই অর্থ সহায়তার কথা জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বিজ্ঞাপন

ইউক্রেনে চলমান রুশ আগ্রাসনের সময় এই সম্মেলনের আয়োজন করল যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে দিয়ে ওয়াশিংটন ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে দীর্ঘমেয়াদে চীনের প্রভাব মোকাবিল করতে সক্ষম হবে বলে আশা করছে বাইডেন প্রশাসন। মূলত চীনকে নিজেদের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

সারাবাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন