বিজ্ঞাপন

শতভাগ ফিট না হলে সাকিবকে দলে চান না ডমিঙ্গো

May 13, 2022 | 5:53 pm

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে সাকিব আল হাসানকে দেখা যাবে কিনা তা নিয়ে চলছে বহু আলোচনা। ঈদের ছুটি কাটিয়ে টেস্ট সিরিজ খেলতে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরে করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হয়েছেন সাকিব। তবে তিন দিনের ব্যবধানে করোনা নেগেটিভ হয়ে চট্টগ্রাম টেস্ট খেলার সম্ভবনা জাগিয়ে তুলেছেন। এদিকে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো জানালেন, ৫০-৬০ ভাগ ফিট সাকিবকে দলে চান না তিনি। শতভাগ ফিট হলে তবেই চট্টগ্রাম টেস্টের দলে সাকিবকে নিতে চান ডমিঙ্গো।

বিজ্ঞাপন

সাকিব আল হাসান করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন গত মঙ্গলবার। ফলে চট্টগ্রাম টেস্ট থেকে তার ছিটকে পড়ার সংবাদ দেওয়া হয়। কিন্তু আজ শুক্রবার (১৩ মে) করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল আসে সাকিবের। যাতে চট্টগ্রাম টেস্ট খেলতে চান বাংলাদেশের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের। আজ সন্ধ্যার ফ্লাইটে চট্টগ্রাম গিয়ে দলের সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে সাকিবের। তবে করোনার ধকল কাটিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের জন্য সাকিবের শরীর সায় দিবে কিনা তা নিয়ে চিন্তা টিম ম্যানেজমেন্টের।

শুক্রবার দুপুরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের বলেছেন, খেলা না খেলার বিষয়টি নির্ভর করছে মেডিকেল রিপোর্ট এবং সাকিবের ইচ্ছার ওপর। বিকেলে ডমিঙ্গো জানালেন, শতভাগ ফিট না হলে সাকিবকে দলে নিতে চান না তিনি।

বিজ্ঞাপন

ডমিঙ্গো বলেন, ‘যে কেনোদিন, যে কেউই সম্পূর্ণ ফিট সাকিবকে দলে পেতে চাইবে। কিন্তু ৫০ বা ৬০ ভাগ ফিট একজন খেলোয়াড়কে টেস্ট ম্যাচ খেলানো কঠিন। পারফর্ম করার সুযোগ দেওয়ার জন্য একজন খেলোয়াড়কে পুরোপুরি ফিট হতে হবে। টেস্ট ক্রিকেট কঠিন। খেলা এবং অনুশীলনের মধ্যে না থেকে হুট করে এসে খেলা আরও কঠিন। এর ওপর সে কোভিড থেকে সেরে উঠেছে। আমারও কোভিড হয়েছিল। আমি জানি কতটা খারাপ অভিজ্ঞতা হয় এতে। শরীরও শক্তি পাওয়া যায় না। এটা টি-টোয়েন্টি বা ওয়ানডে ম্যাচ নয়। এখানে পাঁচ দিন প্রায় ৬ ঘণ্টা করে মাঠে থাকতে হয়। এসব বিষয় অবশ্যই বিবেচনায় আনতে হবে।’

ডমিঙ্গো বললেন ফিটনেস টেস্টর ওপর নির্ভর করছে সাকিবের মাঠে নামা না নামা, ‘তার ফিটনেস পরীক্ষা করতে হবে। কোভিড থেকে সেরে উঠেছে মাত্র এবং খুব বেশি ক্রিকেট কিন্তু ও খেলেনি। সাকিব অবশ্যই আমাদের জন্য বড় খেলোয়াড়। সে দলের ভারসাম্য নিয়ে আসে। তাকে আগামীকাল আমরা দেখব। দুই তিন-সপ্তাহেরও বেশি সময় হয়ে গেছে ও ব্যাটিং বা বোলিং কিছু করেনি। হঠাৎ করে এসে পাঁচদিনের টেস্ট ম্যাচ খেলা কঠিন এবং পারিপার্শ্বিক অনেক কিছু চিন্তা করতে হবে। আমরা তাকে আগামীকাল পরীক্ষা করে । সেক্ষেত্রে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত বিবেচনায় আছেন জানালেন ডমিঙ্গো।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘বোলিং করতে পারে এমন কাউকে আমাদের বিবেচনা করতে হবে। এটা আমাদের জন্যও চ্যালেঞ্জিং। যেমন আমাদের ইয়াসির আলী রাব্বী আছে। যে কিনা দুর্দান্ত পারফর্ম করছে। কিন্তু আমাদের এমন কাউকে প্রয়োজন যে কিনা ১৫-২০ ওভার বোলিং করতে পারে। আমি ঠিক নিশ্চিত নই মুমিনুল ১০–১৫ ওভার বোলিং করতে পারবে কিনা। (নাজমুল হোসেন) শান্তও বোলিং করে কিন্তু ৬-৭ ওভারের বেশি নয়। আমরা শেষ দুই বছর ধরেই ৬-৭ নম্বরে ব্যাটিং এবং ১০-১৫ ওভার বোলিং করতে পারে এমন কাউকে খুঁজছি। সাকিবের অনুপস্থিতিতে আমরা এখননো এমন কাউকে খুঁজছি। সাকিব থাকলে কাজটা সহজ। কিন্তু সাকিবকে খুব বেশি সময় পাওয়া যায় না।’

মোসাদ্দেক প্রসঙ্গে ডমিঙ্গো বলেন, ‘সে আমাদের নির্বাচনের ভাবনায় আছে। সে বোলিং করতে পারে। সাকিব খেলতে না পারলে মোসাদ্দেক খেলার জন্য বিবেচনায় আছে।’

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা প্রথম টেস্ট মাঠে গড়ানোর কথা আগামী ১৫ মে।

সারাবাংলা/এসএইচএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন