বিজ্ঞাপন

টিসিবি’র ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল বিক্রির কার্যক্রম স্থগিত

May 15, 2022 | 11:59 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সয়াবিন তেলের দাম ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে খোলা ট্রাকে করে ১১০ টাকা দরে সয়াবিন তেল বিক্রির ঘোষণা দিয়েছিল ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। তবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি পণ্য বিক্রির সিদ্ধান্তের কারণে এই সয়াবিন তেল বিক্রির এই সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়েছে কার্যক্রম শুরুর আগের দিনে। ফলে সোমবার (১৬ মে) থেকে টিসিবি’র ট্রাকে ১১০ টাকা দরে সয়াবিন তেল মিলবে না।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৫ মে) দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা ও টিসিবি আঞ্চলিক কার্যালয় ঢাকার অফিস প্রধান মো. হুমায়ুন কবিরের সই করা এক বিশেষ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

টিসিবি’র বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিক্রি কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা ও প্রকৃত সুবিধাভোগীর কাছে নিত্যপণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকার নীতিগতভাবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবি’র পণ্য (ভোজ্যতেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ এবং বরিশাল সিটি করপোরেশনে ফ্যামিলি কার্ড প্রণয়ন ও বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- ১৬ মে থেকে টিসিবির ট্রাকে ১১০ টাকায় সয়াবিন তেল

টিসিবি বলছে, ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম শেষ হওয়ার পর থেকে কেবল ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমেই টিসিবি’র পণ্য বিক্রি কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য চলতি মাসে ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত স্বল্প পরিসরে সাধারণ ট্রাকসেল কার্যক্রম স্থগিত করা হলো।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞপ্তিতে টিসিবি আরও বলছে, আগামী জুন মাসে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি নিম্ন আয়ের পরিবারের কাছে টিসিবি ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য (ভোজ্যতেল, মসুর ডাল ও চিনি) বিক্রি করবে।

এর আগে, গত ১১ মে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে টিসিবি জানায়, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য সহনীয় রাখতে খোলা ট্রাকের মাধ্যমে সাশ্রয়ী ও ভর্তুকি মূল্যে ভোজ্যতেল, চিনি, মসুর ডাল ও ছোলা বিক্রি করা হবে ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত। খোলা ট্রাকে প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১১০ টাকা, প্রতি কেজি চিনি ৫৫ টাকা, প্রতি কেজি মসুরের ডাল ৬৫ টাকা ও ছোলা ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করার কথা জানানো হয় ওই বিজ্ঞপ্তিতে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন