বিজ্ঞাপন

টিকটকার সাফা কবির

May 18, 2022 | 5:45 pm

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

একজন টিকটকারের চরিত্রে দেখা মিলবে সাফা কবিরের। পিংকি ক্যাট তার চরিত্রের নাম। পিংকি সুযোগ পেলেই ইন্টারনেট ঠিক করার অজুহাতে মিজানকে বাসায় ডেকে নিয়ে আসে। আর এই মিজান চরিত্রটিকে ধারন করেছেন এলেন শুভ্র।

বিজ্ঞাপন

পিংকির জন্মদিনে অনেকে টিকটক করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানায় কিন্তু মিজান কিছুই করতে পারে না। কীভাবে পিংকিকে জন্মদিনে খুশি করা যায়, কীভাবে পিংকির মন পাওয়া যায় এই ভেবে হয়রান হয় মিজান।

এমন একটি গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নিশান মাহ্‌মুদ পরিচালিত চরকি ফ্লিক ‘হ্যাপি বার্থডে’। ১৯ মে বৃহস্পতিবার রাত ৮টা থেকে চরকির পর্দায় দেখা যাবে এটি।

বিজ্ঞাপন

এই গল্পের মধ্য দিয়ে চরকিতে প্রথমবারের মতো দেখা যাবে সাফা কবির ও এলেন শুভ্রকে। তাদের সাথে পর্দায় দেখা মিলবে রোজী সিদ্দিকী, ইকবাল হোসাইন, আবদুল্লাহ আল সেন্টু, প্রীতি চৌধুরী, হোসেইন জীবন, কাজী আবরার হাসান, ইশরাক রহমান শান্তসহ আরও অনেকের।

কাজটি নিয়ে বেশ আশাবাদী সাফা। তিনি বলেন, ‘হ্যাপি বার্থডে তে কাজ করে আমি খুব হ্যাপি ফিল করছি। এর আগে অনেক ধরনের কাজ আমার করা হয়েছে কিন্তু এই ধরনের মানে এই জনরার কাজ কখনও করা হয়নি। এই এক গল্পে ফান, ইমোশন, থ্রিল, টুইস্ট সব আছে। সেই সঙ্গে সামাজিক কিছু বার্তা আছে যেটা দর্শক দেখে নিজেদের সঙ্গে মেলাতে পারবে।

বিজ্ঞাপন

‘আর বেশ কিছুদিন ধরে চরকির সঙ্গে কাজ করার কথা হচ্ছিল কিন্তু তেমন কোনো চরিত্রে নিজেকে মেলাতে পারচ্ছিলাম না। কিন্তু যখন হ্যাপি বার্থডে-এর গল্প পরিচালকের কাছ থেকে শুনেছি তখনই আমি একবাক্যে রাজি হয়ে গেছি। আর চরকির সঙ্গে যেহেতু আমার প্রথম কাজ তাই আমি চাচ্ছিলাম কাজটা যেনো স্পেশাল ও ভালো হয়। দর্শক যেনো আমার ফার্স্ট এন্ট্রিটা মনে রাখে।’

অভিনেতা এলেন শুভ্র হ্যাপি বার্থডে তে নিজের চরিত্রটা নিয়ে বলেন, ‘এরকম চরিত্র আমার আগে কখনও করা হয়নি। যে চরিত্র আমি আগে করিনি আর আনকমন সেই চরিত্র করতে আমার ভালোও লাগে আবার ভয়ও লাগে। এই কাজে ভয় কাটিয়ে উঠতে সাহায্য করেছে পরিচালক। দারুণ এই গল্পে পরিচালক যে টুইস্টগুলা রেখেছে দর্শক দেখে মজা পাবে।’
হ্যাপি বার্থডে-এর পরিচালক নিশান মাহমুদ বলেন, ‘হ্যাপি বার্থডে আমার নির্মিত প্রথম ফিকশন। তো কাজের প্রথম থেকেই অনেক এক্সসাইটেড ও সেই সঙ্গে অনেক বেশি কনসার্ন ছিলাম। কারণ প্রথম কাজে চেষ্টা করেছি যত্নের যেন কোনো ত্রুটি না হয়। আমি ও আমার পুরো টিম সম্পূর্ণ এফোর্ট দিয়ে কনটেন্টেটি বানিয়েছি।

বিজ্ঞাপন

‘আর এতোদিন বাইরের দেশের ওটিটিগুলো দেখে আফসোস করতাম আমাদের দেশে এমন প্ল্যাটফর্ম কবে হবে... তো খুব অল্প সময়ে ওটিটি হিসেবে চরকি বাংলাদেশে দারুণ একটি স্থান করে নিয়েছে। আমি খুবই লাকি যে আমার প্রথম ফিকশন চরকির জন্য বানাতে পেরেছি।’

হ্যাপি বার্থডে নিয়ে পরিচালক আরও বলেন, ‘এই কনটেন্টটি বানানোর সময় মূলত আমার মাথায় ছিল সোশ্যাল মিডিয়া ও তরুণ সমাজ। এই দুটি বিষয় বর্তমানে একে অপরের পরিপূরক হিসেবে যাক করছে। তরুণ সমাজ কীভাবে নিজেদেরকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বুঁদ করে রাখছে হ্যাপি বার্থডে দেখলেই দর্শক সেটা বুঝতে পারবেন আশা করছি।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন