বিজ্ঞাপন

মেয়র পদে ৬ জনসহ কুসিক নির্বাচনে ১৫৪ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ

May 19, 2022 | 11:33 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

কুমিল্লা: কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে ছয় জন মেয়র প্রার্থীকেই বৈধ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়াও ১১১ জন সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর এবং ৩৭ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত নগরীর শিল্পকলা একাডেমিতে কুসিক নির্বাচনে জমা দেওয়া মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বিকেল ৫টা পর্যন্ত যাচাই-বাছাই শেষে বিকেলে রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী বৈধ প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।

এর আগে, গত ১৭ মে মনোনয়নপত্র জমা দেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। ওই দিন ছয় মেয়র প্রার্থীসহ মোট ১৬৪ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর মধ্যে ১২০ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং ৩৮ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

এর মাঝে বৃহস্পতিবার (১৯ মে) মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই শেষে ছয় জন মেয়র পদপ্রার্থী, ১১১ জন সাধারণ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর এবং ৩৭ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়।

এদিন সকালে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের সময় পাঁচ মেয়র প্রার্থীকে ভোটের লড়াইয়ের জন্য বৈধ ঘোষণা করলেও কাগজপত্রের স্বল্পতায় ইমরানের প্রার্থিতা সাময়িকভাবে আটকে রেখেছিল নির্বাচন কমিশন। পরে বিকেলে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী বলেন, একটি মামলা থেকে অব্যাহতি পাওয়ার কাগজপত্র না থাকায় মাসুদ পারভেজ খান ইমরানের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ৩টা পর্যন্ত স্থগিত ছিল। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সব কাগজপত্র জমা দেওয়ায় সোয়া ৩টায় ইমরানের মনোনয়নও বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, আগামী ২০, ২১ ও ২২ মে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে আপিল গ্রহণ করা হবে। ২৩ মে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে শুনানি হবে। ২৭ মে প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু করতে পারবেন। ১৫ জুন ভোট হবে।

সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই শেষে মেয়র পদে বৈধ হওয়া প্রার্থীরা হলেন— আওয়ামী লীগের আরফানুল হক রিফাত; স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ পারভেজ খান ইমরান, সদ্য সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু (বিএনপি নেতা), মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন কায়সার (বিএনপি নেতা) ও কামরুল আহসান বাবুল; এবং ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী রাশেদুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

এবারে কুমিল্লা সিটির ২৭টি ওয়ার্ডের ১০৫টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হবে। সিটিতে মোট ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ৯২০। এর মধ্যে নারী ভোটার এক লাখ ১৭ হাজার ৯২, পুরুষ ভোটার এক লাখ ১২ হাজার ৮২৬।

এটি কুমিল্লা সিটির তৃতীয় নির্বাচন। এর আগে দুই নির্বাচনেই মেয়র পদে ভোটে নির্বাচিত হন মনিরুল হক সাক্কু। প্রথমবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে এবং দ্বিতীয়বার ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপি প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। এবার ফের স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন