বিজ্ঞাপন

ব্যক্তিশ্রেণির করমুক্ত আয় ৩ লাখ টাকা বহাল থাকছে

June 5, 2022 | 1:52 pm

গোলাম সামদানী, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আগামী ২০২২০২৩ অর্থবছরের বাজেটে ব্যক্তিশ্রেণীর করদাতাদের করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ছে না। চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের ন্যায় আগামী বাজেটেও করমুক্ত আয়ের সীমা ৩ লাখ বহাল থাকছে। ফলে মূল্যস্ফীতি বাড়লেও আগামী বাজেটে ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাদের জন্য নতুন কোনো সুখবর নেই। আগের নিয়মেই বছরে ৩ লাখ টাকার বেশি আয় হলে আয়কর দিতে হবে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থবিভাগ সূত্রে বিষয়টি সারাবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, সর্বশেষ ২০২০-২১ অর্থবছরে ব্যক্তিশ্রেণীর করদাতাদের করমুক্ত আয় সীমা বাড়ানো হয়। গত অর্থবছরে করমুক্ত আয় সীমা আড়াই লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩ লাখ টাকা করা হয়। আগামী বাজেটে তা না বাড়ানোর কারণে পরপর দুই অর্থবছর করমুক্ত ব্যক্তি আয় সীমা অপরিবর্তিত থাকছে। অর্থমন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের মতে, ব্যক্তিশ্রেনীর করমুক্ত আয়ের সীমা ৩ লাখ টাকা থেকে বাড়ানো হলে বিপুলসংখ্যক জনগোষ্ঠী আয়করের আওতার বাইরে চলে যাবে। আর এই কারণে আগামী বাজেটে করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ছে না।

এ ব্যাপারে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থ উপদেষ্টা ড. মির্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, চলতি অর্থবছরে করমুক্ত আয়সীমা ৩ লাখ টাকা। এটা আগামী বাজেটে সাড়ে তিন থেকে চার লাখ টাকা করা যেতে পারে। এতে মানুষের কিছুটা সুবিধা হবে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘করোনার দুই বছরের কারণে বেশির ভাগ মানুষের আয় বাড়েনি। বরং অনেকের আয় কমেছে। পাশাপাশি দ্রব্যমূল্যে ঊর্ধ্বগতির কারণে মুল্যস্ফীতি বেড়েছে। এ অবস্থা থেকে কিছুটা উত্তরণ ঘটাতে আগামী অর্থবছরে ব্যক্তিশ্রেণির মানুষের করমুক্ত আয়সীমা ৩ লাখ টাকা থেকে বাড়ানো উচিত বলে আমি মনে করছি।’

জানা গেছে, চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে ব্যক্তি শ্রেনীর করদাতাদের বার্ষিক আয় ৩ লাখ টাকা হলে কোনো আয়কর দিতে হয় না। আয় ৩ লাখ টাকার বেশি হলে পরবর্তী ১ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ের ওপর ৫ শতাংশ, ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ের ওপর ১০ শতাংশ, পরবর্তী ৪ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ের ওপর ১৫ শতাংশ, পরবর্তী ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ের ওপর ২০ শতাংশ এবং অবশিষ্ট আয়ের ওপর ২৫ শতাংশ হারে কর দিতে হয়। তবে নারী ও ৬৫ বছর বা তদূর্ধ্ব বয়সের করদাতাদের জন্য ৩ লাখ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৩ লাখ ৫০ হাজার এবং গেজেটভুক্ত যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য করমুক্ত আয়ের সীমা ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের বাসিন্দাদের ৫ হাজার টাকা, অন্য সিটি করপোরেশন এলাকার ক্ষেত্রে ৪ হাজার টাকা এবং অন্য জেলা, উপজেলা ও গ্রামাঞ্চলের করদাতাদের জন্য ৩ হাজার টাকা ন্যূনতম আয়কর দিতে হয়।

অন্যদিকে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে বিত্তশালীদের সম্পদের ওপর কর হার আগের মতোই বহাল থাকছে। সম্পদের মূল্য ৩ কোটি টাকার কম হলে সারচার্জ দিতে হবে না। তবে সম্পদের মূল্য ৩ কোটি থেকে ১০ কোটি টাকার মধ্যে হলে ১০ শতাংশ, ১০ থেকে ২০ কোটি টাকার মধ্যে থাকলে ২০ শতাংশ, ২০ থেকে ৫০ কোটি টাকার মধ্যে থাকলে ৩০ শতাংশ এবং ৫০ কোটি টাকার বেশি সম্পদ থাকলে ৩৫ শতাংশ প্রদেয় কর সারচার্জ দিতে হবে।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য আগামী ৯ জুন বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আগামী ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বাজেট সংসদে উপস্থাপন করা হচ্ছে। এবার প্রাথমিকভাবে ৬ লাখ ৭৭ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকার বাজেট প্রাক্কলন করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। অন্যদিকে চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে ঘোষিত বাজেটের আকার ছিল ৬ লাখ ৩ হাজার ৬৮১ কোটি টাকা।

সারাবাংলা/জিএস/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন