বিজ্ঞাপন

২৬ কোটি টাকার প্রকল্পে অনিয়ম তদন্তে রুয়েটে ইউজিসির ৩ কর্মকর্তা

June 5, 2022 | 9:13 pm

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

রাজশাহী: রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) ২৬ কোটি টাকার প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। রোববার (৫ জুন) ইউজিসির তিন কর্মকর্তা রুয়েটে এসেছেন। তারা কিছু নথিপত্র সংগ্রহ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

আগামীকাল সোমবারও তারা প্রকল্পের বিষয়ে সবকিছু তদন্ত করে দেখবেন।

জানা গেছে, সরকারি সংস্থার মাধ্যমেই রুয়েটের একটি বিভাগ খোলার প্রকল্পে অনিয়মের বিষয়ে জানতে পারে ইউজিসি। এ নিয়ে ইউজিসির সচিব এবং পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক ড. ফেরদৌস জামান এবং দুই উপপরিচালক রোকসানা লায়লা এবং আবদুল আলীমকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয়।

রুয়েটে গ্লাস অ্যান্ড সিরামিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ চালু করতে ২৬ কোটি ১১ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। ২০১৬ সালে প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়। এ প্রকল্প পরিচালক (পিডি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মোট পাঁচজন। সবশেষ পিডি ছিলেন অধ্যাপক ড. আবদুল আলীম। তার বিরুদ্ধে প্রকল্প শেষে বেঁচে যাওয়া টাকা সরকারি কোষাগারে জমা না দেওয়ার অভিযোগ পেয়েছে ইউজিসি। প্রকল্পে প্রায় ১৩ কোটি টাকা নয়ছয় হয়েছে বলে অভিযোগ পেয়েছে ইউজিসি।

বিজ্ঞাপন

তবে প্রকল্প বাস্তবায়নে কোন অনিয়ম হয়নি দাবি করে ড. আবদুল আলীম বলেন, ‘ইউজিসির সচিবসহ অন্য দুই উপপরিচালক রুয়েটে এসে তার সঙ্গে কথা বলেছেন। তবে তার আগের ৪ পিডিকে ডাকা হয়নি। ইউজিসি যে টাকা দিয়েছিল তা ঠিকঠাক খরচ হয়েছে কি না, কোন ধরনের যন্ত্রপাতি কেনা হয়েছে এসব দেখতে কর্মকর্তারা এসেছেন। প্রকল্পের ব্যাংক হিসাবে একক স্বাক্ষর দিয়ে টাকা তোলা যায় না।’ তাই কোন অনিয়মও হয়নি বলেও দাবি করেন রুয়েটের এই অধ্যাপক।

জানতে চাইলে ইউজিসির সচিব ড. ফেরদৌস জামান বলেন, ‘সরকারের একটি সংস্থার মাধ্যমেই আমরা কিছু অনিয়মের খবর পেয়েছি। সেগুলো খতিয়ে দেখতেই আমরা রুয়েটে এসেছি। আজ (রোববার) দুপুরের পর আমরা কিছু কাগজপত্র সংগ্রহ করেছি। রাতে এগুলো বিশ্লেষণ করব। আগামীকাল (সোমবার) আবার সবকিছু দেখব। তারপর অনিয়ম হয়েছে কী না আমরা সেই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারব।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমও

Tags: , , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন