বিজ্ঞাপন

সীতাকুণ্ডে আগুনের ঘটনায় দোষীদের আইনের আওতায় আনার দাবি

June 7, 2022 | 1:17 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সীতাকুণ্ডের কনটেইনার বিস্ফোরণের ঘটনায় যাদের গাফিলতি রয়েছে তারাই এর জন্য দায়ী। তাদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৭ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি দগ্ধ রোগীদের দেখতে এসে এসব কথা বলেন তিনি।

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম বলেন, ‘যারা আহত হয়েছেন, তাদের সুস্থতা কামনা করছি। যাদের গাফিলতিতে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে। শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। আর হতাহতদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে। আর এটি নাশকতা কিনা সেটিও তদন্তের মাধ্যমে উদঘাটন করা হোক।’

বিজ্ঞাপন

নাছিমা বেগম বলেন, ‘আহতদের চিকিৎসায় কোনো ঘাটতি নেই। হাসপাতালে যে চিকিৎসা হচ্ছে, রোগীরা এতে সন্তুষ্ট। ফায়ার ফাইটাররা যে আন্তরিকতার সঙ্গে ফাইট করে গেছে তা প্রশংশনীয়। কনটেইনারে যে হাইড্রোজেন পার অক্সাইড রয়েছে তা পানির সংস্পর্শে এলে আরও মারাত্মক আকার ধারণ করে। এটি ফায়ার ফাইটারদের আগেই জানিয়ে দেওয়া উচিৎ ছিল। এতে তারা আরও প্রটেকশন নিয়ে কাজ করতে পাড়তো। এখানেও কর্তৃপক্ষ দায়িত্বে গাফিলতি করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এমন মানবিক বিপর্যয় কাম্য না। ভবিষ্যতে যাতে আর না ঘটে সেজন্য এখনই সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। আগেই সচেতন হওয়া উচিৎ।’

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএসআর/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন