বিজ্ঞাপন

দ্বিগুণের বেশি বরাদ্দ পাচ্ছে গরিব-মেধাবী শিক্ষার্থীরা

June 9, 2022 | 4:57 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য দ্বি গুণের বেশি অনুদান বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের সময় এ তথ্য জানান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বিজ্ঞাপন

অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে এ বাবদ এককালীন ২০ কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হবে।

এর আগে, ২০২১-২০২২ অর্থবছরে গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সাহায্য মঞ্জুরি হিসেবে এককালীন আট কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছিল। যা আসন্ন বাজেট বরাদ্দের চেয়ে ১২ কোটি টাকা কম।

বিজ্ঞাপন

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার হার বৃদ্ধি, জেন্ডার সমতা আনয়ন, সাধারণ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিভিত্তিক শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণের সমন্বয়ে শিক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়ন, ছাত্র ও শিক্ষকদের বৃত্তি-উপবৃত্তিসহ আর্থিক সহায়তা প্রদান, মেধার বিকাশে নানারূপ কার্যক্রম গ্রহণ, সহায়ক নীতিমালা ও পরিবেশ তৈরি, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সক্ষমতা বৃদ্ধি এবং অবকাঠামো নির্মাণ ও উন্নয়ন, বেসরকারি এমপিওভূক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের আর্থিক সুবিধা প্রদান, বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ, ই-বুকের প্রচলন, উপজেলা আইসিটি ট্রেনিং ও রিসোর্স সেন্টার স্থাপন, ইত্যাদি বহুমাত্রিক কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

বেসরকারি শিক্ষক-নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) এর মাধ্যমে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩৮ হাজার ২৮৩ জন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে এবং ১৫ হাজার ১৬৩ জন শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন। ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ১২ হাজার শ্রেণিকক্ষ নির্মাণ করা হচ্ছে। ই-বুকের প্রচলন, উপজেলা আইসিটি ট্রেনিং ও রিসোর্স সেন্টার স্থাপন, ৩১৫টি উপজেলায় ১টি করে বেসরকারি বিদ্যালয়কে মডেল স্কুলে রূপান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষার সুযোগবঞ্চিত দরিদ্র মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা নিশ্চিত করার জন্য গঠিত প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ডে সিড মানি হিসাবে ১ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। ট্রাস্টি বোর্ড গঠন ও ট্রাস্ট পরিচালনা বিধি প্রণয়নসহ জনবল কাঠামো চূড়ান্তকরত কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে বলেও বক্তব্যে উল্লেখ করেন অর্থমন্ত্রী।

এদিকে শিক্ষা খাতে ২০২২-২৩ অর্থ বছরের নতুন বাজেটে মোট বরাদ্দ বাড়িয়েছে সরকার।

বিজ্ঞাপন

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন খাতগুলোতে এবার মোট ৮১ হাজার ৪৪৯ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি গত বছরের তুলনায় মোট ৯ হাজার ৪৯৫ কোটি টাকা বেশি। গেল বার শিক্ষা খাতে বরাদ্দ ধরা হয়েছিল ৭১ হাজার ৯৫৪ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে আসন্ন অর্থ বছরের বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল শিক্ষাখাতে বরাদ্দের বিষয়ে বিস্তারিত বক্তব্য দেন।

বিজ্ঞাপন

শিক্ষা খাতের মধ্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জন্য এবার ৩১ হাজার ৭৬১ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। আগের বার এই বরাদ্দ করা হয়েছিল ২৬ হাজার ৩১৪ কোটি টাকা। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের জন্য ৩৯ হাজার ৯৬১ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। আগের বার এই বরাদ্দ করা হয়েছিল ৩৬ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের জন্য ৯ হাজার ৭২৭ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। আগের বার এই খাতে ৯ হাজার ১৫৩ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল।

প্রসঙ্গত, ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটের আকার ধরা হয়েছে ছয় লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। এর আগে, ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটের আকার ছিল ছয় লাখ তিন হাজার ৬৮১ কোটি টাকা।

সারাবাংলা/টিএস/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন